আন্তর্জাতিকনতুন খবর

দোকানে রাখা যাবে না ‘পুতুল”, ইসলামে হারাম আখ্যা দিয়ে শিরচ্ছেদ করার নির্দেশ তালিবানের

নয়া দিল্লিঃ আফগানিস্তানে ক্ষমতায় আসার পর থেকে তালিবানরা স্বেচ্ছাচারী আইন পাশ করে আসছে এবং জোরপূর্বক আফগানদের সেটি অনুসরণ করতে বাধ্য করছে। এখন তালিবানরা দোকানে কুশপুত্তলিকাগুলোর (ম্যানেকুইন) শিরোচ্ছেদ করার ফরমান জারি করেছে। কারণ হিসেবে তালিবানরা বলছে, এই কুশপুত্তলিকাগুলো ইসলামের নিয়ম লঙ্ঘন করছে। হেরাতের পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশে তালিবানরা দোকানদারদের তাঁদের দোকানে রাখা মূর্তিগুলোর শিরশ্ছেদ করার নির্দেশ দিয়েছে, কারণ এগুলো মূর্তি আর ইসলামে মূর্তি পূজা করা অপরাধ।

এই সপ্তাহে পূণ্যের প্রচার এবং দুষ্কর্ম প্রতিরোধের জন্য গড়া মন্ত্রক এই ফরমান জারি করেছে। প্রথমে মন্ত্রক দোকানগুলি থেকে মূর্তিগুলি সম্পূর্ণ অপসারণের নির্দেশ দিয়েছিল, তবে দোকানদারদের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে মূর্তিগুলির শিরশ্ছেদ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। দোকানদারদের বলছেন যে, একটি পুতুলের দাম ৭০ থেকে ১০০ ডলার পর্যন্ত। সেগুলো সরিয়ে দেওয়া বা মাথা কেটে ফেলা হলে তাঁদের অনেক ক্ষতি হবে।

ক্ষমতায় দখলের পর তালিবানরা বলেছিল যে, রা নারী ও সবার অধিকারের জন্য কাজ করবে, কিন্তু সরকার গঠনের আগে থেকেই তালিবানরা জনগণের অধিকারকে চূর্ণ করতে শুরু করে। বিশেষ করে নারীর অধিকার খর্ব করা হয়, এমনকি তাঁদের লেখাপড়াও নিষিদ্ধ করা হয়।

Related Articles

Back to top button