আন্তর্জাতিকনতুন খবর

আমেরিকা যেতেই মাসুদের বিরুদ্ধে লড়তে গিয়েছিল তালিবান, উল্টে করল নিজেদের ক্ষতি

নয়া দিল্লিঃ আফগানিস্তান থেকে আমেরিকা তল্পিতল্পা গগুটিয়ে নিজের দেশে ফিরতেই তালিবান নিজেদের মুখোশ খুলে বেরিয়ে আসা শুরু করেছে। সোমবার রাতে আমেরিকার শেষ বিমান কাবুল বিমানবন্দর থেকে রওনা দেয়। আর তখনই তালিবান পঞ্জশির দখলের উদ্দেশ্যে সেখানে হামলা চালায়।

নর্দান অ্যালায়েন্স দাবি করেছে যে, সোমবার রাতে তালিবান গোটা রাত ধরে পঞ্জশির উপত্যকায় ঢোকার চেষ্টা করে। কিন্তু তাঁদের তুমুল প্রতিরোধের ফলে তালিবানের প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয় আর দুই পক্ষের গোলাগুলিতে তালিবানের কমপক্ষে ৮ সদস্য নিকেশ হয়।

নর্দান অ্যালায়েন্স জানায়, তাঁদেরও দুজন বিদ্রোহী তালিবানের সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে প্রাণ হারিয়েছে। উল্লেখ্য, তালিবান গোটা আফগানিস্তানে এখনও কবজা জমাতে পারেনি। সোমবার পর্যন্ত মার্কিন সেনা কাবুলে থাকায় কাবুল বিমানবন্দর তালিবানের হাতের বাইরে ছিল। আর এখন কাবুল বিমানবন্দর তাঁদের দখলে এলেও পঞ্জশির তাঁদের ধরা ছোঁয়ার বাইরে।

শের-ই-পঞ্জশির আহমেদ শাহ মাসুদের পুত্র আহমেদ মাসুদ এবং আফগানিস্তানের কার্যবাহ রাষ্ট্রপতি অমরুল্লাহ সালেহর নেতৃত্বে নর্দান অ্যালায়েন্স তালিবানের বিরুদ্ধে মোর্চা খুলে বসেছে। বিগত কয়েকদিন ধরেই তালিবান পঞ্জশিরে ঢোকার চেষ্টা করে চলেছে, কিন্তু বারবার তাঁরা মাসুদ বাহিনীর হাতে পরাজিত হচ্ছে। অন্যদিকে অমরুল্লাহ সালেহর কণ্ঠরোধের জন্য তালিবানরা পঞ্জশির এলাকায় মোবাইল ইন্টারনেট ব্যান করে দিয়েছে।

Related Articles

Back to top button