নতুন খবরভারতবর্ষ

ঋণের দায়ে ডুবে যেতে বসেছে নামি সরকারি সংস্থা! বাঁচাতে এগিয়ে এল TATA

সরকারি চাকরিতে কর্মীদের কুঁড়েমির কারণে বহু সরকারি সংস্থা আজ ঋণগ্রস্থ। আর এর থেকে সংস্থাগুলিকে বাঁচতে সরকার এখন প্রাইভেটাইজেশনের উপর ব্যাপক জোর দিতে শুরু করেছে। এই পরিপেক্ষিতে সরকারি ঋণের দায়ে ডুবতে বসা আরেক বড় সংস্থাকে প্রাইভেটাইজেশন করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। আসলে ঋণে ডুবে থাকা সরকারি এয়ারলাইন কোম্পানি এয়ার ইন্ডিয়ার (Air India) বিক্রির প্রক্রিয়া একেবারে অন্তিম পর্যায়ে।

ডুবে যাওয়া কোম্পানিকে বাঁচাতে এগিয়ে এল TATA

এয়ার ইন্ডিয়া এয়ারলাইনকে কেনার লাইনে রয়েছে অনেক কোম্পানিই, তবে টাটা (Tata Sons) এই দৌড়ে সবার থেকে এগিয়ে রয়েছে। টাটা গ্রুপ (Tata Group) এয়ার ইন্ডিয়াকে কেনার আগ্রহ প্রকাশ করেছে। যদি সবকিছু ঠিকঠাক থাকে, তাহলে বছর শেষ হওয়ার আগেই টাটার হাতে তৃতীয় এয়ারলাইনের চাবি চলে আসবে। বর্তমানে টাটার কাছে এয়ার এশিয়া (Air Asia), আর ভিস্তারার (Vistara) দায়িত্ব রয়েছে।

এয়ার ইন্ডিয়া এখনও সরকারের দখলে থাকলে প্রায় ৭০ বছর আগে এই এয়ারলাইনের শুভারম্ভ জামশেদজি টাটা করেছিলেন। উনি ১৯৩২ সালে টাটা এয়ার সার্ভিস শুরু করেছিলেন। যা পরে টাটা এয়ারলাইন্স হয়ে যায় আর ২৯ জুলাই ১৯৪৬ সালে তা পাবলিক লিমিটেড কোম্পানি হয়ে যায়। এরপর ১৯৫৩ সালে সরকার টাটা এয়ারলাইন্স অধিগ্রহণ করে। আর এবার প্রায় ৭০ বছর পর টাটা গ্রুপ এয়ার ইন্ডিয়া কেনার আগ্রহ দেখাচ্ছে।

আগেও হয়েছিল বিক্রির চেষ্টা

এর আগেও সরকার এই এয়ারলাইনকে বিক্রির চেষ্টা করেছিল। সেই সময় সংস্থাটি ৬০ হাজার কোটি টাকার ঋনে ডুবে ছিল। সেই সময় সংস্থা বেচার উপর বেশকিছু শর্ত লাগিয়েছিল সরকার। যে কারণে সেই সময় এয়ার ইন্ডিয়ান কিনতে রাজি হয়নি কেউই।

Related Articles

Back to top button