Press "Enter" to skip to content

কাশ্মীরে ভারতীয় সেনার এনকাউন্টারে খতম ১৮ জঙ্গি

শেয়ার করুন -

নয়া দিল্লীঃ গত বছর পাঁচ আগস্ট জম্মু কাশ্মীর (jammu and kashmir) থেকে ৩৭০ ধারা তুলে দেওয়ার পর ছয় মাসে কাশ্মীরে সেনার (Indian Army) ক্ষতি অতটা হয়নি, যতটা লকডাউনের এই ২৮ দিনে হয়েছে। ২৫ মার্চ থেকে জারি এই লকডাউনকে কড়া ভাবে পালন করার জন্য মোতায়েন সেনার উপর বড়বড় হামলা হয়ে গেছে। এই লকডাউনে কাশ্মীরের আলাদা আলাদা জায়গায় প্রায় ১৮ বার হামলা হয়েছে।

গত ১৩ দিনে কাশ্মীরে জঙ্গি হামলায় ১০ জওয়ান শহীদ হয়েছে। যদিও ভারতীয় সেনার পাল্টা হামলায় ১৮ জঙ্গি খতম হয়েছে। আরেকদিকে, জম্মু কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা তুলে দেওয়ার পর পাঁচ মাসে সেনার ৫ জওয়ান শহীদ হয়েছিলেন। এবং ৪০ জন জঙ্গিকে খতম করা হয়েছিল।

উল্লেখ্য, এই সময় কাশ্মীরে মোতায়েন সেনা লকডাউনের সাথেও যুদ্ধ করছে। জম্মু কাশ্মীরে এই সময় সবথেকে বেশি করোনার মামলা কাশ্মীর থেকেই সামনে এসেছে। সন্ত্রাসবাদের ঘাঁটি বলে পরিচিত বান্দিপোরা, শোপিয়ান, অনন্তনাগ, বারামুলা থেকে করোনার সবথেকে বেশি মামলা সামনে এসেছে।

সেখানে মানুষকে নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য সেনার মাথার ঘাম পায়ে পড়ছে। ভারতীয় সেনা করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করতে ব্যস্ত, আর জঙ্গিরা এই সময়েই বেশি করে সেনার উপর হামলা চালাচ্ছে।

সাড়া বিশ্ব করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করছে। কাশ্মীরে সেনা দিন-রাত মানুষের সেবা করে চলছে। আর সেটার সুযোগ নিয়ে জঙ্গিরা সেনার উপরে হামলা চালাচ্ছে। পাকিস্তানের লঞ্চিং প্যাড আর জঙ্গি ক্যাম্পে করোনা ছড়িয়ে আছে। এরপরেও ওঁরা ভারতে অশান্তি ছড়ানোর চেষ্টা চালাচ্ছে। কিন্তু আমাদের সেনা পাকিস্তানের প্রতিটি হামলার জবাব দেওয়ার জন্য প্রস্তুত।