নতুন খবরভারতবর্ষ

চীনের বুকে ভয় ধরিয়ে ভারতের সঙ্গে কোটি কোটি টাকার চুক্তি করল এই দেশ, ঘুম উড়ল বেজিংয়ের

নয়া দিল্লিঃ  দক্ষিণ চীন সাগরে দাদাগিরি দেখাতে গিয়ে বড় ধরনের ধাক্কা খেল চীন। চীনের আগ্রাসী মনোভাবের মুখোমুখি হওয়া ফিলিপাইন ভারতের সাথে বিশ্বের দ্রুততম সুপারসনিক অ্যান্টি-শিপ ক্রুজ মিসাইল ব্রহ্মোস কেনার অনুমোদন দিয়েছে। সংবাদ সংস্থা ANI অনুযায়ী, ফিলিপাইনের ন্যাশনাল ডিফেন্স ডিপার্টমেন্ট ব্রাহ্মোসের আধিকারিকদের কাছে এই তথ্য পাঠিয়েছে। ব্রহ্মোস ক্ষেপণাস্ত্রের জন্য এটিই প্রথম বিদেশি অর্ডার। এই চুক্তি ৩৭৪.৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলারে হয়েছে।

এই চুক্তিতে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল, আমেরিকার সহযোগী দেশ ফিলিপাইন চীনের বিরুদ্ধে সামরিক প্রস্তুতির জন্য ভারত-রাশিয়ার যৌথভাবে তৈরি ব্রহ্মোস ক্ষেপণাস্ত্রের প্রতি আস্থা প্রকাশ করেছে। বলে দিই, ব্রহ্মোস সুপারসনিক মিসাইল শব্দের তিনগুণ গতিতে অর্থাৎ ঘণ্টায় ৪৩২১ কিলোমিটার বেগে আঘাত হানতে সক্ষম।

ফিলিপাইনকে চোখ রাঙাতে থাকা চীন ভারতের সঙ্গে ফিলিপাইনের এই চুক্তিতে বড় ধরনের ঝটকা খেয়েছে। উল্লেখ্য, দক্ষিণ চীন সাগরে ফিলিপাইনের অধিকার ক্ষেত্রে নিয়ে চীনের সঙ্গে বহুদিন ধরেই বিরোধ চলছে। রিপোর্ট অনুযায়ী, এমন পরিস্থিতিতে ফিলিপাইন তার উপকূলীয় এলাকায় ব্রহ্মোস ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন করে চীনকে কড়া বার্তা দিতে চলেছে।

সূত্র বলছে যে, ডিআরডিও (প্রতিরক্ষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থা) এবং ব্রহ্মোস অ্যারোস্পেস এই ক্ষেপণাস্ত্রটি বন্ধুত্বপূর্ণ দেশগুলিতে রপ্তানির জন্য পূর্ণ প্রচেষ্টা চালাচ্ছে। ডিআরডিও সম্প্রতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে মেড ইন ইন্ডিয়া রাডারের একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। ভারত শীঘ্রই অন্যান্য বন্ধু দেশগুলির কাছ থেকে ক্ষেপণাস্ত্রের অর্ডার পেতে চলেছে। কারণ ভিয়েতনাম, ইন্দোনেশিয়ার মতো দেশগুলোর সঙ্গেও ব্রহ্মোস নিয়ে আলোচনা চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে৷ ভারত ব্রহ্মোস ক্ষেপণাস্ত্রের ক্ষমতাও বৃদ্ধি করেছে এবং অনেক উন্নত বৈশিষ্ট্যে সজ্জিত করেছে।

Related Articles

Back to top button