আন্তর্জাতিকনতুন খবরভারতবর্ষ

বিশাল সংকটে ডুবে গিয়েছিল এই দেশ, দেবদূত হয়ে সাহায্য করল ভারত, মিলল প্রতিদানও

নয়া দিল্লিঃ এই মুহূর্তে ভারত শুধু এশিয়ার একটি বড় পরাশক্তি হিসেবেই আবির্ভূত হয়নি, একই সঙ্গে সবচেয়ে বড় ব্যাপার হল, ভারত এখন এত শক্তিশালী দেশ যে, তাঁরা আশেপাশের দেশগুলোর দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়ে তাঁদের বিপদের সময় উদ্ধার করে। এই মুহূর্তে শ্রীলঙ্কার ক্ষেত্রেও একই রকম কিছু ঘটছে, যা অনেকাংশে প্রত্যাশিত ছিল। আসলে শ্রীলঙ্কা বর্তমান সময়ে খুব বড় অর্থনৈতিক সংকটের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। আর ভারত এই দুঃসময়ে দেবদূত হয়ে প্রকট হয়েছে।

আপনি জানেন কী যে, শ্রীলঙ্কা এখন বিশাল ঋণের মধ্যে রয়েছে এবং তাঁদের বৈদেশিক মুদ্রার ভাণ্ডার প্রায় নিঃশেষ হয়ে গিয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে শ্রীলঙ্কাকে কেবল তার কয়েক বিলিয়ন ডলারের ঋণ শোধ করতে হবে না বরং তার দেশ পরিচালনাও চালিয়ে যেতে হবে, কিন্তু এখন তাদের কাছে টাকা নেই। গত ১৭ জানুয়ারি পরিস্থিতি এমন ছিল যে, পরের দিন বিদ্যুৎ উৎপাদনের টাকাও তাদের কাছে ছিল না।

তারা ইতিমধ্যে ভারতের কাছে একটি অনুরোধ পাঠিয়েছিল শ্রীলঙ্কা, যার ভিত্তিতে ভারত সরকার সম্প্রতি শ্রীলঙ্কায় ৫০০ মিলিয়ন ডলারের সাহায্য পাঠিয়েছে। ভারতের এই সাহায্যের কারণে শ্রীলঙ্কায় আপাতত বিদ্যুৎ সংকট মিটেছে। কোনো দেশে বিদ্যুৎ না থাকলে সে দেশ পুরোপুরি স্থবির হয়ে প্রস্তর যুগে চলে যাবে, সেটা আশাকরি কারও অজানা নেই। তবে ভারতের কারণে শ্রীলঙ্কা এই বিপদ থেকে উদ্ধার হয়েছে।

এখানেই শেষ নয়, শ্রীলঙ্কাকে এই বছর ৬ বিলিয়নের বেশি ঋণ পরিশোধ করতে হবে, যার মধ্যে বেশিরভাগ অর্থ চীনে যাবে এবং বন্ডের জন্যও প্রচুর অর্থ দিতে হবে। এখন এমন পরিস্থিতিতে শ্রীলঙ্কা যদি ঋণ পরিশোধ করতে ব্যর্থ হয়, তাহলে সম্ভবত আগামী দিনে চীন শ্রীলঙ্কার আরও কয়েকটি বন্দর ও বিমানবন্দর ইত্যাদি ৯৯ বছরের জন্য লিজে নিয়ে নেবে। এতে একদিকে যেমন শ্রীলঙ্কার ক্ষতি, তেমনই ভারতের জন্যও অশনি সংকেত।

এটি ভারতের জন্য কৌশলগতভাবে খুবই খারাপ, কারণ চীন শ্রীলঙ্কার মাধ্যমে ভারতকে ঘিরে ফেলার চেষ্টা করবে এবং এমন পরিস্থিতিতে ভারত এই চাপের অর্থনৈতিক সময়েও শ্রীলঙ্কাকে সাহায্য করতে বাধ্য হয়েছে। এটা সম্ভব যে ভবিষ্যতে ভারত আগামী দিনে জাপান ও যুক্তরাজ্যের সাথে যৌথ প্রচেষ্টা চালিয়ে শ্রীলঙ্কাকে এই অর্থনৈতিক সংকট থেকে বেরিয়ে আসতে সাহায্য করতে পারে।

 

অন্যদিকে ভারতের এই সাহায্যের প্রতিদানও দিয়েছে শ্রীলঙ্কা। সম্প্রতি ৩৮ বছর ধরে আটকে থাকা চুক্তি এবার বাস্তবায়িত হয়েছে। শ্রীলঙ্কা আনুষ্ঠানিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ ত্রিনকোমালি তেল ট্যাঙ্ক প্রকল্পে ভারতকে অন্তর্ভুক্ত করায় সিলমোহর দিয়েছে। এখন ভারত ও শ্রীলঙ্কা যৌথভাবে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় নির্মিত ত্রিনকোমালি তেল ট্যাঙ্ক কমপ্লেক্স পুনর্নির্মাণ করবে। এটা চীনের জন্য বড়সড় একটি ঝটকা। কারণ চীন বহুদিন ধরেই এই প্রকল্পের দিকে তাকিয়ে ছিল। যা এখন ভারত শুরু করতে চলেছে।

Related Articles

Back to top button