নতুন খবরভারতবর্ষভারতীয় সেনা

থরথর করে কাঁপবে শত্রুরা, আগামীকালই ভারতীয় নৌসেনায় যুক্ত হচ্ছে এই বিধ্বংসী রণতরী

নয়া দিল্লিঃ  সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামীকাল অর্থাৎ ২১ শে নভেম্বর ভারতীয় নৌবাহিনীতে (indian navy) যুক্ত হতে চলেছে INS বিশাখাপত্তনম (ins visakhapatnam)। মিসাইল ধ্বংসকারী শক্তিশালী INS বিশাখাপত্তনম ভারতের নৌবাহিনীতে যুক্ত হতে চলার খবর দিলেন আইএনএস-এর কমান্ডিং অফিসার ক্যাপ্টেন বীরেন্দ্র সিং বেন্স। এর ফলে ভারতের সামুদ্রিক শক্তি কয়েকগুণ বেড়ে যাবে।

সূত্রের খবর, আত্মনির্ভর ভারত অভিযানের অংশ হয়ে ৭৫ শতাংশ দেশীয় সরঞ্জাম দিয়ে তৈরি করা হয়েছে এই যুদ্ধ জাহাজ। এই শক্তিশালী অস্ত্র ভারতের হাতে আসার সঙ্গে সঙ্গেই, সমুদ্র পথে আগত শত্রুকে নিমেষে শেষ করার ক্ষমতা রাখবে ভারত।

এই যুদ্ধ জাহাজের বিষয়ে আইএনএস-এর কমান্ডিং অফিসার ক্যাপ্টেন বীরেন্দ্র সিং বেন্স জানিয়েছেন, ‘আগের থেকে জাহাজের যন্ত্রপাতি, বিভিন্ন আনুষাঙ্গিক, অস্ত্র ব্যবস্থা এবং সেন্সর উন্নত করা হয়েছে’। সূত্রের খবর, ২০২২ সালের মধ্যেই বিশাখাপত্তনম শ্রেণীর অন্তর্গত যুদ্ধজাহাজ আইএনএস মার্মাগাঁও, ইম্ফল, পোরবন্দরকে কার্যকরী করা হবে।

INS বিশাখাপত্তনমের বৈশিষ্ট্য হল-

এই যুদ্ধ জাহাজ ৩২ বারাক ৮ মিসাইল দিয়ে সজ্জিত রয়েছে। ভূপৃষ্ঠ থেকে আকাশে আঘাত হানতে সক্ষম এই হাতিয়ার। INS বিশাখাপত্তনমের দৈর্ঘ্য ১৩৬ মিটার, প্রস্থ ১৭ মিটার এবং ওজন ৭৪০০ টন। গতি ঘণ্টায় ৫৫.৫৬ কিলোমিটার।বিমান, হেলিকপ্টার, জাহাজ বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র, ড্রোন, ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র, ক্রুজ মিসাইল এবং যুদ্ধবিমান ধ্বংস করতে এটি সক্ষম। ১৬ টি ব্রহ্মোস মিসাইল দিয়ে সজ্জিত রয়েছে INS বিশাখাপত্তনম। চারটি গ্যাস টারবাইন ইঞ্জিন থেকে এটি শক্তি পায়।

প্রসঙ্গত, গত ১০ ই সেপ্টেম্বর বিশাখাপত্তনম থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে ‘ধ্রুব’ নামক শক্তিশালী জাহাজ যোগ দিয়েছে ভারতীয় নৌসেনাবাহিনীতে। ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন (ডিআরডিও) এবং ন্যাশনাল টেকনিকাল রিসার্চ অর্গানাইজেশনের (এনটিআরও) সহায়তায় হিন্দুস্তান শিপইয়ার্ডের যৌথ উদ্যোগে এই জাহাজ তৈরি করা হয়েছে। যার ওজন প্রায় ১০,০০০ টন। জলের তলায় সশস্ত্র নজরদারিও করতে সক্ষম এই জাহাজ।

Related Articles

Back to top button