নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গ

নেতাজি ও হিন্দুদের গালিগালাজ করা উন্মাদী রোদ্দুর রায়ের বিরুদ্ধে বজরঙ্গ দলের অভিযোগ নিল না পুলিশ!

বারাকপুরঃ নিজেকে স্পষ্টবাদী, নির্ভীক এবং অকুণ্ঠচিত্ত বলে পরিচয় দেওয়া রোদ্দুর রয় বারবার ভারতের গর্ব নেতাজী সুভাষ চন্দ্র বসুকে (Subhash Chandra Bose) অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ দিয়ে এসেছে। শুধু সুভাষ চন্দ্র বসুই নয়, গোটা ভারত, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, রবিন্দ্র সংগীত সমেত কাউকেই অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ দিতে ছাড়ে নি রোদ্দুর রয়। এমনকি একবার লাইভে এসেও বলেছে যে আমার কেউ কিছুই করতে পারবে না। এবার সেই রোদ্দুর রায়ের বিরুদ্ধে থানায় গেলো বজরং দল (Bajrang Dal)।

তবে থানায় গিয়ে লাভ হয় নি তাদের। কারণ পুলিশ রোদ্দুর রায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ নিতে অস্বীকার করেছে। টিটাগড় থানার পুলিশের এরকম মনোভাব দেখে অবাক বজরং দলের কর্মীরা। প্রসঙ্গত, রোদ্দুর রায় নামের এই ইউটিউবার দেশ, এবং স্বাধীনতা সংগ্রামীদের অকথ্য ভাষায় বারংবার গালিগালাজ দিয়ে শিরোনামে উঠে আসে। এর আগে রবিন্দ্র সংগীতকে বিকৃত করে তাঁর গাওয়া ‘চাঁদ উঠেছিল গগনে” নিয়েও অনেক বিতর্ক ছড়ায়।

রোদ্দুর রয়ের বিরুদ্ধে বারবার অভিযোগ উঠলেও প্রশাসনের তরফ থেকে এখনো কোন পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। আর সেই রোদ্দুর রায়ের বিরুদ্ধে গত ১৬ই জুন মঙ্গলবার টিটাগড় থানায় অভিযোগ জানাতে যায় বজরং দলের সদস্যরা। কিন্তু তাদের সেখান থেকে হতাশ হয়ে খালি হাতেই ফিরতে হয়।

গত ১২ই জুন রোদ্দুর রায় ফেসবুক লাইভে এসে হিন্দু ধর্ম এবং গীতার সারাংশ নিয়ে নানান অশ্লীল মন্তব্য করে। ওই ভিডিও দেখার পর অনেকেই ক্ষোভে ফেটে পড়ে। এরপর তাঁকে গ্রেফতার করার দাবি আরও জোরালো হয়ে ওঠে। আর সেই কারণে গত মঙ্গলবার রোদ্দুর রায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ নিয়ে থানায় যায় বজরং দল। কিন্তু এতে কোন লাভ হয়না তাদের।

বজরং দলের সদস্য শঙ্কর বসু বলেন, টিটাগড় থানা আমাদের অভিযোগ জমা নেয়নি। এখন আমরা ব্যারাকপুর থানায় অভিযোগ জানাতে যাব। আর সেখানেও অভিযোগ না নিলে আমরা আগামী কর্মসূচি নিয়ে চিন্তাভাবনা করব। শঙ্কর বসু বলেন, আমাদের একটাই দাবি আর সেটা হল রোদ্দুরকে গ্রেফতার করে উপযুক্ত শাস্তি দেওয়া।

Related Articles

Back to top button