নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গ

ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে কাঁটাতারের ওপারের মানুষদের কাছে ভোট প্রার্থনা তৃণমূল প্রার্থীর!

কোচবিহারঃ নির্বাচনী প্রচারের জন্য কোমর বেঁধে নেমেছে প্রতিটি রাজনৈতিক দল। এদিক ওদিক সবদিকেই সভা করে ভোটারদের নিজেদের কাছে টেনে নিতে চাইছে শাসক থেকে বিরোধী সমস্ত দলগুলোই। প্রার্থীরাও রাস্তায় নেমে পায়ে হেঁটে মানুষের কাছে ভোট ভিক্ষা করছেন। আর এই ভোট ভিক্ষার মধ্যে তৃণমূলের এক প্রার্থীর ফেসবুক পোস্ট সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

তৃণমূলের প্রার্থীর ওই ফেসবুক পোস্টের ক্যাপশনে লেখা হয়েছে, ‘আজ তেতুঁলের ছড়া সীমান্তে কাঁটাতারের ওপারের মানুষদের সাথে কথা বললাম ও ভোট প্রার্থনা করলাম।” কোচবিহারের শীতলকুচির তৃণমূল প্রার্থী পার্থ প্রতিম রায়ের ফেসবুকে পোস্টে এটুকু বোঝা গিয়েছে যে, তিনি কাঁটাতারের ওপারের মানুষদের কাছে ভোট চাইছেন। আর সীমান্তবর্তী এলাকায় কাঁটাতারের ওপারের মানুষ মানেই বিদেশী।

তৃণমূল প্রার্থীর এই ফেসবুক পোস্ট সোশ্যাল মিডিয়ায় দুরন্ত গতিতে ভাইরাল হচ্ছে। মাত্র ২ ঘণ্টা আগে করা এই পোস্টে প্রায় ৯০০ রিয়াক্ট পড়েছে আর কমেন্ট পড়েছে প্রায় দেড়শ। তবে বেশীরভাগ কমেন্টেই তৃণমূল প্রার্থীর তুমুল সমালোচনা হচ্ছে। সবার একটাই প্রশ্ন, পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচনে বাংলাদেশের ভূমিকা কি? কেনই বা শাসক দলের প্রার্থী বাংলাদেশীদের থেকে ভোট চাইছেন? যদিও প্রার্থী পোস্টে কারোর জবাব দেওয়ার প্রয়োজন মনে করেন নি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় তৃণমূল প্রার্থীর এই ভাইরাল হওয়া ছবিটি কোচবিহারে বাংলাদেশ সীমান্ত সংলগ্ন এলাকা বলেই বোঝা যাচ্ছে। আর কাঁটাতারের ওপারে চাষের কাজ করা মানুষদের থেকে তৃণমূল প্রার্থীকে হাত জোড় করে ভোট চাইতেও দেখা যাচ্ছে। এমনকি ওনার পাশে দাঁড়িয়ে থাকা এক ব্যক্তিকে তৃণমূলের প্রতীক হাতে ধরে রাখতেও দেখা যাচ্ছে। তবে তৃণমূল প্রার্থী কেন কাঁটাতারের ওপারের মানুষদের কাছ থেকে ভোট প্রার্থনা করলেন, সেটা এখনও জানা যায়নি। আর তাঁরা বাংলাদেশী না ভারতীয় সেটাও জানা আমাদের পক্ষে সম্ভব হয়নি।

তবে অনেকের মতেই এই কাঁটাতারের সীমান্তের ওপারে বাংলাদেশ থাকলেও অনেক ভারতীয়র জমি সীমান্তের মার প্যাঁচে ওপারে রয়েছে, আর তাঁরা সেই জমি চাষ করতে ওপারে প্রতিনিয়ত যাতায়াত করেন। সীমান্তবর্তী এলাকায় এটা খুবই স্বাভাবিক ব্যাপার।

Related Articles

Back to top button