নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

BJP নেতার বাড়িতে হাজির অভিষেকের সভায় অনুপস্থিত থাকা TMC বিধায়ক! শোরগোল রাজ্য রাজনিতিতে

কলকাতাঃ নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে দলবদলের পালা তত বাড়ছে। আর দলবদলে সবথেকে বেশি অস্বস্তিতে শাসক দল তৃণমূল (All India trinamool congress)। একের পর এক তৃণমূল নেতা দল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন। এমনকি আরও কয়েকজন মন্ত্রী, বিধায়ক বিজেপিতে যোগ দেওয়ার জন্য মুখিয়ে আছে বলে দাবি বিজেপির! এই নিয়ে চলছে নানান জল্পনা। আর এরই মধ্যে বিজেপি নেতার বাড়িতে তৃণমূলের বিধায়ক সমেত দাপুটে নেতার আচমকাই উপস্থিতি জল্পনা আরও বাড়িয়ে দিয়েছে।

আজ বিজেপির নেতা শোভন চট্টোপাধ্যায়ের বাড়িতে হাজির হন ডায়মন্ড হারবারের তৃণমূল বিধায়ক দীপক হালদার এবং ডায়মন্ড হারবারের জেলা পরিষদের স্বাস্থ্য কর্মাধ্যক্ষ আবু তাহের। দুজন তৃণমূল নেতার আচমকাই বিজেপির নেতার বাড়িতে গিয়ে হাজির হওয়া রাজনৈতিক মহলে জল্পনা বাড়াচ্ছে। যদিও এটিকে সৌজন্য সাক্ষাৎ বলে দাবি করেছেন তৃণমূল নেতা।

জানিয়ে রাখি, ডায়মন্ড হারবারে তৃণমূলের সাংসদ তথা যুব তৃণমূলের সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের জনসভার দিন গরহাজির ছিলেন ডায়মন্ড হারবারের বিধায়ক দীপক হালদার। বিজেপি নেতার বাড়িতে তৃণমূল নেতাদের উপস্থিতি নিয়ে রাজনৈতিক মহলে শোরগোল পড়ে গিয়েছে। যদিও তৃণমূল নেতারা দাবি করেছেন যে এটি ব্যক্তিগত সাক্ষাৎ মাত্র।

জেলা পরিষদের স্বাস্থ্য কর্মাধ্যক্ষ আবু তাহের বলেন, আমরা আলাদা আলাদা ভাবে শোভনদার বাড়িতে গিয়েছিলাম। সেখানে গিয়েই আমার সাথে দীপক হালদারের সাথে দেখা হয়েছে। এর মধ্যে কোনও রাজনীতি আর জল্পনা নেই। বিজেপিতে যোগ দেওয়ারও কিছু নেই। আমরা তৃণমূলেই আছি। ওনার বাড়িতে গিয়ে চা, মোয়া খেয়ে এলাম। ব্যক্তিগত কারণেই ওনার বাড়িতে গিয়েছিলাম আর কিছুই নয়।

আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের আগে বিজেপি উঠেপড়ে লেগেছে তৃণমূলে ভাঙন ধরানোর জন্য। কিছুদিন আগে বিজেপির সাংসদ সুনীল মণ্ডল দাবি করেছিলেন যে, তৃণমূলের ১৬ থেকে ১৭ জন সাংসদ বিজেপিতে আসতে চলেছে কিছুদিনের মধ্যেই। ওনার ওই মন্তব্যের পর রাজ্যের রাজনৈতিক মহলে শোরগোল পড়ে যায়। যদিও তৃণমূল ওনার দাবি অস্বীকার করেছে। তৃণমূল দাবি করেছিল যে, উনি সদ্য বিজেপিতে যোগ দিয়ে নিজের মহিমা বজায় রাখতে এহেন মন্তব্য করছে। ওনার দাবিতে কোনও সত্যতা নেই।

Related Articles

Back to top button