নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গ

অর্জুন সিংকে বলব ও যেন আমাকে না মারে, আমি ওঁকে ভয় পাইঃ ফিরহাদ হাকিম

কলকাতাঃ হেস্টিংসে আজ বিজেপি অফিসের সামনে পূর্ব বর্ধমানের সাংসদ সুনীল মণ্ডলের গাড়ির সামনে বিক্ষোভ দেখানো আর সংঘর্ষের ঘটনায় উল্টে বিজেপিকেই দোষারোপ করলেন পুর এবং নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। সাংবাদিকদের সামনে ফিরহাদ হাকিম বলেন, ‘ওখানে কি হয়েছে জানিনা। সুনীল মণ্ডলের গাড়ির সামনে যা হয়েছে সেটা বিজেপিরই তফশিলি সংগঠন করেছে। এর পিছনে তৃণমূলের কোনও হাত নেই। আমার কোনও কাজ নেই যে, ওসব পচা পার্টি অফিসের সামনে কে যাচ্ছে সেসব দেখব। অর্জুন, শুভেন্দু সব জানে আমি এসব নিচু রাজনীতি করি না”

উল্লেখ্য, তৃণমূল থেকে বিজেপিতে আগত নবাগত নেতৃত্বদের শনিবার অর্থাৎ আজ সকাল সাড়ে ১০ টা নাগাদ বিজেপির হেস্টিংস অফিসে সংবর্ধনার ব‍্যবস্থা করা হয়। কিন্তু সেখানে প্রাক্তন তৃণমূল সাংসদ সুনীল মন্ডল আসতেই তাঁর গাড়ি ঘিরে ধরে স্থানীয় তৃণমূল কর্মীরা। শুধু তাই নয়, অভিযোগ উঠেছে তৃণমূল কর্মীরা এই নব বিজেপি নেতার গাড়ির বনেটে ঝান্ডা দিয়ে মেরে ভেঙে দেয়। সেই সঙ্গে বিজেপির হেস্টিংস পার্টি অফিসের সামনেই কৃষি আন্দোলনের সমর্থনে এক বিক্ষোভ মঞ্চ তৈরি করে তৃণমূল। সবকিছুর মধ্যে থেকে সাংসদ সুনীল মন্ডলকে ধাক্কাধাক্কিও করে তৃণমূল সদস্যরা। তারপর তাঁকে সেখান থেকে গার্ড দিয়ে বিজেপি কর্মীরা পার্টি অফিসের ভেতরে নিয়ে যায়। কিন্তু তৃণমূলের তরফ থেকে গোটা ঘটনাটাই অস্বীকার করা হয়।

এই ঘটনা প্রসঙ্গে বিজেপি নেতা অর্জুন সিং (Arjun Singh) জানিয়েছেন, ‘এটা খুবই নক্কার জনক একটি ঘটনা। কোনও রাজনৈতিক দলের দলীয় কার্যালয়ের সামনে নোংরামি কিভাবে হয়? দেখবেন মানুষের সময় যখন খারাপ হয়, তখন তার বিবেকও নষ্ট হয়ে যায়। এই ঘটনার পর মুখ‍্যমন্ত্রী তাঁর কালীঘাটের বাড়িতে ঢুকতে পারবেন তো?’

তৃণমূলের বিরুদ্ধে অর্জুন সিংয়ের এহেন অভিযোগের পর পুর এবং নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বলেন, ‘অর্জুন সিং হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন যে, অগণতান্ত্রিক উপায়ে জবাব দেবে। উনি তা দিতে পারেন, কারণ উনি মাফিয়া। আমি নিজেই অর্জুন সিংকে ভয় পাই। আমি ওকে বলব, ও যেন আমাকে না মারে।”

Related Articles

Back to top button