নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

তুমুলে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব, প্রকাশ্যে এক বিধায়ক আরেক বিধায়ককে দিলেন হাড় ভেঙে দেওয়ার হুমকি

বহরমপুরঃ শাসক দল তৃণমূলের অন্তর্দ্বন্দ্ব গোটা রাজ্য জুরেই বিরাজমান। পশ্চিমবঙ্গের মতো এরকম অন্তর্দ্বন্দ্ব হয়ত দেশের আর কোনও রাজ্যেই নেই। আর এবার আবারও প্রকাশ্যে এল তৃণমূলের অন্তর্দ্বন্দ্ব। প্রকাশ্য জনসভায় মুর্শিদাবাদের রেজিনগরের তৃণমূল বিধায়ক রবিউল আলম চৌধুরীকে হুমকি দিলেন ভরতপুরের তৃণমূল বিধায়ক হুমায়ূন কবির।

এই ঘটনার একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরালও (Viral Video) হচ্ছে। ঘটনার খবর প্রকাশ্যে আসতেই রেজিনগরের তৃণমূল বিধায়ক আলম চৌধুরী দলের শীর্ষ নেতৃত্বদের কাছে এই বিষয়ে হুমায়ন কবিরের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন। তিনি হুমায়ূন কবিরের শাস্তিরও দাবি করেছেন।

প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার মুর্শিদাবাদের শক্তিপুরের একটি সভায় উপস্থিত ছিলেন হুমায়ূন কবির। সেখান থেকেই তিনি মাইক হাতে নিয়ে রবিউল আলমকে প্রকাশ্যে হুমকি দেন। হুমায়ূন কবির প্রকাশ্য সভায় এও বলেন যে, ‘সাবধান রবিউল, আমার সঙ্গে পাঙ্গা নিতে এলে আমি হাড়গোড় এক করে দেব।”

মুর্শিদাবাদে এই দুই নেতার দ্বন্দ্ব বহু পুরনো। ২০১১ সালে কংগ্রেসের টিকিটে রেজিনগর আসন থেকে জয়ী হয়েছিলেন হুমায়ূন কবির। এরপর তিনি তৃণমূলে যোগ দেন আর বিধায়ক পদ ছেড়ে দেন। উপ-নির্বাচন হলে রবিউল আলমের কাছে পরাজিত হন হুমায়ূন কবির। রবিউল সেই সময় কংগ্রেসের টিকিটে ওই আসন থেকে জয়ী হয়েছিলেন।

এরপর ২০১৬ সালেও কংরেসের টিকিটে জয়ী হন রবিউল আলম চৌধুরী। যদিও, পরে তিনিও তৃণমূলে যোগ দেন। এরপর ২০২১ সালে তৃণমূলের তরফ থেকে দুজনকেই টিকিট দেওয়া হয়। দুজনই তৃণমূলের টিকিটে জয়ী হন।

Related Articles

Back to top button