নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

দম থাকলে BJP পঞ্চায়েতে মনোনয়ন দিক, মেরে ঠ্যাং ভেঙে দেবঃ তৃণমূল বিধায়ক জগদীশ বর্মা

সিতাইঃ ভোট পরবর্তী হিংসা এখন অনেকটাই কম, তবে শাসক দলের নেতাদের হুমকি ভরা বাণী এখনও কমেনি। কিছুদিন আগে বীরভূমের এক তৃণমূলে নেতা ভরা মঞ্চ থেকে প্রকাশ্যে হুমকি দিয়ে বলেছিলেন যে, পঞ্চায়েত ভোটে বিরোধী মনোনয়ন জমা দিতে গেলে আর বাড়ি ফিরতে পারবে না। আর এবার শাসক দলের এক বিধায়ককে সেই একই সুরে হুমকি দিতে দেখা গেল।

কোচবিহারের সিতাইয়ের তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক জগদীশ বর্মা বাসুনিয়া প্রকাশ্যে বিজেপিকে হুমকি দিয়ে বলেছেন যে, পঞ্চায়েত নির্বাচনে মনোনয়ন জমা দিতে গেলে পা ভেঙে দেওয়া হবে। তৃণমূল বিধায়ক হুমকির সুরে বলেন, ‘ভোটে আমার মিলিটারি, আমাদের বিএসএফ থাকবে।” স্বয়ং শাসক দলের বিধায়কের এহেন হুমকি এটা প্রমাণ করছে যে, গতবারের মতো এবারের পঞ্চায়েত নির্বাচনও অশান্তিতে কাটবে।

উল্লেখ্য, ২০১৮-র পঞ্চায়েত নির্বাচনে রাজ্য জুড়ে অশান্তির আবহ সৃষ্টি হয়েছিল। গোটা রাজ্যের বিভিন্ন পঞ্চায়েত এলাকায় বিরোধীরা মনোনয়নই জমা দিতে পারেনি। বিরোধীদের তরফ থেকে শাসকদল তৃণমূলের বিরুদ্ধে ভোটে অশান্তি ছড়ানোর অভিযোগ করা হয়েছিল। যদিও, শাসক দল সমস্ত অভিযোগ খারিজ করে দেয়। এছাড়াও গোটা ভোটে ২০০-র বেশি মানুষ রাজনৈতিক হিংসার কারণে প্রাণ হারিয়েছিল বলে দাবি করে আসে বিজেপি। আর এবার তৃণমূল বিধায়কের এই হুমকি আবারও বড়সড় অশনি সঙ্কেতের দিকেই ইশারা করছে।

শুক্রবার তৃণমূল বিধায়ক জগদীশ বর্মা দলীয় একটি অনুষ্ঠানে বলেন যে, ২০২৪-র নির্বাচনে গোটা ভারতের মানুষ বিজেপিকে গলা ধাক্কা দিয়ে নামিয়ে দেবে। ১৭৯ লক্ষ কোটি টাকা দেনা করেছে এই বিজেপি সরকার। সেটা শোধ করার জন্য সরকারি সম্পত্তি বিক্রি করার পরিকল্পনা নিয়েছে। এরকম সরকার রাখা উচিৎ কী?

বিধায়ক আরও বলেন, ২০২৩-র পঞ্চায়েত ভোট নিয়ে যারা আশায় বুখ বাঁধছেন, তাঁদের বাপের দম থাকলে বিডিও অফিসের সামনে মনোনয়ন জমা দিয়ে দেখাক। বিধানসভার ভোটে বিএসএফ, মিলিটারির ভয় দেখাচ্ছিল। পঞ্চায়েত ভোটে কী করবে? তখন কোনও বিএসএফ, মিলিটারি আসবে না। তখন তৃণমূলের মিলিটারি আর বিএসএফ থাকবে। বিজেপি নেতা পঞ্চায়েত অফিসের সামনে মনোনয়ন জমা দিতে এলে ঠ্যাং ভেঙে দেওয়া হবে।

Related Articles

Back to top button