নতুন খবরভারতবর্ষরাজনীতি

আইন শৃঙ্খলা নেই ত্রিপুরায়, বিপ্লবের নামে নালিশ আর দিল্লিতে ধরনা দেওয়ার প্রস্তুতি তৃণমূলের

কলকাতাঃ ত্রিপুরায় আইন শৃঙ্খলার অবনতি। বারবার আক্রান্ত হচ্ছে তৃণমূল। আর এই নিয়েই এবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের দ্বারস্থ হতে চলেছে ঘাসফুল শিবির। এদিন ত্রিপুরার রাজধানী আগরতলায় তৃণমূলের যুবনেত্রী সায়নী ঘোষের গ্রেফতারির পর তৃণমূলের সংসদীয় দল তুমুল তৎপর হয়েছে। তৃণমূলের তরফ থেকে দ্রুত সাংসদের দিল্লিতে রওনা দেওয়ার হুইপ জারি করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

সায়নী ঘোষের গ্রেফতারির পর তৃণমূলের সংসদীয় দলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, ত্রিপুরায় আইন শৃঙ্খলার অবনতির অভিযোগ নিয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে দেখা করতে চেয়েছেন সাংসদরা। পাশাপাশি দলের তরফ থেকে সোমবার ধরনা দেওয়ারও প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। উল্লেখ্য, সোমবারই দিল্লি যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা।

উল্লেখ্য, আগামী ২৫ তারিখ ত্রিপুরার পুরভোট। আর রবিবারই ছিল শেষ প্রচার। আর দিনেই তৃণমূলের যুব নেত্রী সায়নী ঘোষকে গেফতার করার ঘটনায় উত্তাপ বাড়ে ত্রিপুরার রাজনীতিতে। এদিন ত্রিপুরা পুলিশ খুন করার চেষ্টা করার অভিযোগে সায়নী ঘোষকে গ্রেফতার করেছে। তৃণমূলের যুব নেত্রীর বিরুদ্ধে ১২০ বি, ১৫৩ ও ৩০৭ ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

এদিন সকাল থেকেই আগরতলার পূর্ব থানায় ছিলেন তৃণমূলের যুব সভাপতি সায়নী ঘোষ। জিজ্ঞাসাবাদ করার পর তাঁকে আটক করে পুলিশ। সেই সময় থানায় উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল সাংসদ সুস্মিতা দেব, প্রাক্তন সাংসদ অর্পিতা ঘোষ এবং তৃণমূল নেতা কুণাল ঘোষ। সায়নীকে যতক্ষণ না ছাড়া হবে, ততক্ষণ তাঁরা থানাতেই থাকবেন বলে জানিয়েছেন। বিজপির বিরুদ্ধে তাঁরা থানাতে ঢুকে হামলারও অভিযোগ চালায়। তৃণমূলের অভিযোগ, ত্রিপুরার আইন ব্যবস্থা সম্পূর্ণ ভাবে ভেঙে পড়েছে। বিপ্লব দেব সরকার সবক্ষেত্রেই ব্যর্থ। আর এই নিয়েই তাঁরা অমিত শাহের সঙ্গে দেখা করতে চায়। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে নালিশ জানানোর উদ্দেশ্যেই যাবে তাঁরা।7

Related Articles

Back to top button