নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

মুখ্যমন্ত্রীর উত্তরবঙ্গ সফরের দিনই দলবদলের সুর তৃণমূল প্রার্থীর গলায়! চাপে শাসক দল

রায়গঞ্জঃ রাজ্যে ভোটপর্ব শুরু হয়েছে। দুই দফার ভোটও হয়ে গেছে। আগামী ৬ এপ্রিল তৃতীয় দফার নির্বাচন হবে। তবে এবার নির্বাচনে জিতবে কে, সেটা নিয়ে সংশয় রয়েছে। কারণ এবার বাংলায় প্রধান প্রতিপক্ষ হয়ে উঠেছে বিজেপি (Bharatiya Janata Party)। আর তাঁরা বাংলায় ২০০-র বেশি আসন নিয়ে ক্ষমতায় আসার দাবি জানাচ্ছে। আরেকদিকে, শাসক দল তৃণমূলও (All India Trinamool Congress) ২০০-র বেশি আসন নিয়ে পুনরায় বাংলায় ক্ষমতায় আসবে বলে দাবি করছে। পিছনে নেই সংযুক্ত মোর্চাও। তাঁরাও বাংলা শাসন করার জন্য উঠেপড়ে লেগে আছে।

তবে কে ম্যাজিক ফিগার পার করবে সেটা ২ মে’র আগে বলা সম্ভব না। আর কেউ যদি একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পায়, তাহলে কি হতে পারে, সেটা নিয়ে আগেই সংশয় প্রকাশ করেছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। তিনি বিজেপিকে আক্রমণ করে বলেছেন, বিজেপি বিধায়ক ভাঙিয়ে সরকার গড়ার লক্ষ্যে রয়েছে। যদিও, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আশঙ্কা যে একবারে ফেলে দেওয়ার মতো না, সেটা কর্ণাটক আর মধ্যপ্রদেশ দেখলেই বোঝা যায়। দুই জায়গাতেই বিজেপি সরকারের বাইরে থেকে এক বছরের মধ্যে সরকার ভেঙে সরকার গড়ে নিয়েছে।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ওই আশঙ্কার সুরের মধ্যেই তৃণমূলের প্রার্থীর মন্তব্যে রাজ্য রাজনীতিতে শোরগোল পড়ে গিয়েছে। একদিকে উত্তরবঙ্গ সফরে গিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, আরেকদিকে সেই সফরের দিনেই উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জের তৃণমূল (All India Trinamool Congress) প্রার্থী কানাইয়ালাল আগরওয়ালের (Kanhaiyalal Agarwal) মন্তব্যে কার্যত চাপে পড়েছে শাসক দল।

শুক্রবার উত্তর দিনাজপুরের প্রেস ক্লাবে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েছিলেন রায়গঞ্জের তৃণমূল প্রার্থী কানাইয়ালাল আগরওয়াল। সেখানে ওনাকে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করেন যে, ‘২০১৬ সালে বাম-কংগ্রেস জোটের টিকিটে জয়লাভ করে আপনি তৃণমূলে গিয়েছিলেন। তাহলে এবার কি আপনি রায়গঞ্জে তৃণমূলের টিকিটে জিতে বৃহত্তর কোনও পদক্ষেপ নেবেন?”

প্রশ্নের উত্তরে কানাইয়ালাল বলেন, ‘রাজ্যে সংযুক্ত মোর্চার সরকার কোনওভাবেই গঠন হবেনা এটা পরিস্কার। আর বিজেপিও রাজ্যে ক্ষমতায় আসতে পারবে না। কিন্তু সেরকম কোনও পরিস্থিতির মুখোমুখি হলে গতবার যেমন ইসলামপুরের উন্নয়ন আর জনগণের কথা ভেবে তৃণমূলে যোগ দিয়েছিলাম। তেমনই এবার রায়গঞ্জের মানুষের কথা ভেবে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নিতে পারি।”

তিনি বলেন, গতবার কংগ্রেসের টিকিটে জিতে মানুষের থেকে সহমতি নিয়েই তৃণমূলে গিয়েছিলাম। সবাই আমাকে তৃণমূলেই যেতে বলেছিল। আর এবার যদি তিনি তৃণমূলের টিকিটে জয়ী হন, এবং বিজেপি সরকার গড়ে তাহলে আবারও জনমত নিয়ে পরবর্তী পদক্ষেপ নেবেন।

Related Articles

Back to top button