নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গ

শোভন-বৈশাখীর বিজেপি ছাড়ার পর গেরুয়া শিবিরে যোগদানের সম্ভাবনা প্রবল তৃণমূলের এই তারকা বিধায়কের

কলকাতাঃ গতকাল তৃতীয় এবং চতুর্থ দফার নির্বাচনের জন্য ৬৩ জন প্রার্থীর তালিকা ঘোষণা করেছে বিজেপি। গতকালের এই প্রার্থী তালিকায় বেশ চমক ছিল গেরুয়া শিবিরের। তিনজন লোকসভার সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়, লকেট চট্টোপাধ্যায় আর নিশীথ প্রামাণিককে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের প্রার্থী করেছে বিজেপি। আরেকদিকে, একজন রাজ্যসভার সাংসদ স্বপন দাশগুপ্তকেও প্রার্থী করেছে বিজেপি।

সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়কে দাঁড় করানো হয়েছে হুগলির চুঁচুড়া বিধানসভা এলাকা থেকে। আরেকদিকে, কোচবিহারের সাংসদ নিশীথ প্রামাণিককে দিনহাটা থেকে প্রার্থী করা হয়েছে। রাজ্যসভার সাংসদ স্বপন দাশগুপ্তকে তারকেশ্বর থেকে প্রার্থী করেছে বিজেপি। এবং কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী তথা আসানসোলের বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়কে টালিগঞ্জ থেকে প্রার্থী করা হয়েছে।

টালিগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্র থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দাঁড়াতে পারেন বলে জল্পনা উঠেছে। আর সেই কেন্দ্রেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে প্রার্থী করে নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত নিল বিজেপি। এছাড়াও গতকাল একঝাঁক তারকাকে প্রার্থী করেছে বিজেপি। অভিনেতা যশ দাশগুপ্তাকে চণ্ডীপুর, তনুশ্রী চক্রবর্তী শ্যামপুকুর এবং অঞ্জনা বসুকে সোনারপুর সাউথ থেকে প্রার্থী করা হয়েছে। এবং কিছুদিন আগে বিজেপিতে যোগ দেওয়া অভিনেত্রী পায়েল সরকারকে বেহালা পূর্ব থেকে প্রার্থী করা হয়েছে।

এই বেহালা পূর্ব আসনে পায়েল সরকারের নাম ঘোষণা হওয়ার পরই বিজেপির নেতা শোভন চট্টোপাধ্যায় এবং নেত্রী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপির সঙ্গে সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন করার ঘোষণা করে দেন। শোভনবাবু বেহালা পূর্ব থেকে প্রার্থী হতে চেয়েছিলেন, কিন্তু সেখানে টিকিট না পাওয়ায় বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে গেরুয়া শিবিরের সঙ্গে সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন করেন।

শোভন-বৈশাখীর বিজেপির সং ত্যাগ করার পর তৃণমূলের তারকা এক নেত্রীর বিজেপি যোগের জল্পনা তীব্র হয়েছে। সেই নেত্রী হলেন রায়দিঘির তৃণমূল বিধায়ক দেবশ্রী রায়। ২০১৯ এ শোভন-বৈশাখী বিজেপিতে যোগ দিতে গিয়েছিলেন দীনদয়াল উপাধ্যায় মার্গেবিজেপির দফতরে। সেখানে আগে থেকেই বসে ছিলেন রায়দিঘির তৃণমূল বিধায়ক দেবশ্রী রায়।

দেবশ্রীদেবীকে বিজেপির সদর দফতরে বসে থাকতে দেখে শোভন-বৈশাখী বেঁকে বসেন। ওনার স্পষ্ট জানিয়ে দেন যে, দেবশ্রী বিজেপিতে যোগ দিলে ওনারা দেবেন না। এরপর বাধ্য হয়ে দেবশ্রী রায়কে ফেরত পাঠায় বিজেপির নেতারা। সেদিন জেপি নাড্ডার হাত ধরে বিজেপিতে যোগ দেন শোভন-বৈশাখী।

কিন্তু গতকাল টিকিট না পাওয়ায় বিজেপির সং ত্যাগ করেছেন বাংলার সবথেকে চর্চিত এই জুটি। এখন প্রশ্ন উঠছে যে, শোভন-বৈশাখী তো এখন আর নেই, তাহলে কি এবার বিজেপিতে যোগ দেবেন দেবশ্রী? একেতেই এবার দেবশ্রী রায়কে প্রার্থী করেনি তৃণমূল। আর সেই নিয়ে বেশ কয়েকদিন ধরে জল্পনা চলছিল। আর এমত অবস্থায় শোভন-বৈশাখীর বিজেপি ত্যাগ সেই জল্পনা আরও উস্কে দিল।

যদিও দেবশ্রী রায় বিজেপিতেই যোগ দিচ্ছেন কি না, সেটা কোনও সদুত্তর পাওয়া যায় নি। তবে বিজেপির নেতাদের মতে রাজনীতিতে সবই সম্ভব। কখন যে কি হয়ে যাবে, সেটা কেউ বলতে পারবে না।

Related Articles

Back to top button