অপরাধভারতবর্ষ

হায়দ্রাবাদের পর উন্নাও! আরও একবার ধর্ষিতাকে আগুনে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা, গ্রেফতার তিন

উত্তর প্রদেশের উন্নাও (Unnao) জেলা থেকে আরও একবার চরম অমানবিকতার চিত্র ফুটে উঠলো। উন্নাও জেলায় এক গণধর্ষিতাকে বৃহস্পতিবার সকালে জ্যান্ত জ্বালিয়ে দেওয়ার মামলা সামনে এসেছে। পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, ধর্ষিতাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় লখনউ এর ট্রমা সেন্টারে ভর্তি করানো হয়েছে, সেখানে তাঁকে বাঁচানোর জন্য প্রাণপনে চেষ্টা চালাচ্ছে ডাক্তারেরা। ঘটনার খবর পাওয়ার পর পুলিশ তদন্ত শুরু করে দিয়েছে। এই ঘটনার পর গোটা এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে। শোনা যাচ্ছে যে, ধর্ষিতার গায়ে কেরোসিন তেল ছিটিয়ে আগুনে পুড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছিল।

আপনাদের জানিয়ে রাখি, ২০১৮ এর ফেব্রুয়ারি মাসে উন্নাও জেলার এক মহিলাকে গণধর্ষণ করা হয়েছিল। এই ঘটনায় সমস্ত অভিযুক্তদের গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। আপাতত সমস্ত অভিযুক্ত জামিনে মুক্ত। বৃহস্পতিবার সকালে ধর্ষিতাকে কেউ জ্যান্ত জ্বালানোর চেষ্টা করে। পুলিশ ঘটনার তদন্তে নেমে তিন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে। বাকি দুই জনকে গ্রেফতারের জন্য তল্লাশি চালানো হচ্ছে।

এলাকাবাসী এই ঘটনার পিছনে পুলিশ এবং প্রশাসনের উদাসীনতাকে দায়ী করেছে। আরেকদিকে কংগ্রেসের নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধী এই ঘটনার পর ট্যুইট করে যোগী সরকার এবং প্রশাসনকে তীব্র আক্রমণ করেছেন।

এক সপ্তাহের মধ্যে গোটা দেশ জুড়ে একের পর এক ধর্ষণ কাণ্ড এবং ধর্ষিতার সাথে নির্মমতার কাহিনী গোটা দেশকে শোকের মধ্যে ফেলে দিয়েছে। দিন কয়েক আগেই তেলেঙ্গানার পশু চিকিৎসক প্রিয়াঙ্কা রেড্ডিকে ধর্ষণ করে জ্যান্ত জ্বালিয়ে দেয় দুষ্কৃতীরা। এই ঘটনায় চার জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এই ঘটনার পর গোটা দেশে ধর্ষকদের সাজা একমাত্র ফাঁসি হওয়ার দাবি জোরালো হয়ে উঠেছে।

 

Back to top button
Close