Press "Enter" to skip to content

উত্তর প্রদেশে অ-মুসলিম শরণার্থীদের নাগরিকতা দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করলো যোগী সরকার

শেয়ার করুন -

উত্তর প্রদেশ দেশের প্রথম এমন রাজ্য যেখানে নাগরিকতা সংশোধন আইন লাগু করার প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেছে। রাজ্য সরকার ১৯ জেলায় থাকা হিন্দু শরণার্থীদের সূচি তৈরি করেছে। এই সূচি উত্তর প্রদেশ থেকে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকে পাঠানো হয়েছে। পরিসংখ্যান অনুযায়ী, প্রায় ৪০ হাজার অ – মুসলিম শরণার্থী উত্তর প্রদেশে এখন বসবাস করছে। আর শুধুমাত্র পিলিভিতে থাকা হিন্দু শরণার্থীদের সংখ্যা ৩০ হাজার থেকে ৩৫ হাজার।

সংবাদ সংস্থা এএনআই জানিয়েছে যে, যোগী সরকার একটি রিপোর্ট জারি করেছে। ওই রিপোর্টে উত্তর প্রদেশে আসা পাকিস্তান, আফগানিস্তান এবং বাংলাদেশ থেকে শরণার্থীদের যন্ত্রণার কথা আছে। ওই রিপোর্টে শরণার্থীদের নিজের মুখে বলা কাহিনীও আছে।

একটি নিজস্ব সংবাদ সংস্থার সাথে কথা বলার সময় উত্তর প্রদেশের মন্ত্রী শ্রীকান্ত শর্মা বলেন এই প্রক্রিয়া এখন চলতে থাকবে। শর্মা বলেন, সমস্ত জেলাশাসককে সমীক্ষা করার আর এই লিস্টকে আপডেট করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। শর্মা জানান, রাজ্য সরকার এই তালিকা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের সাথে ভাগ করবে।

যোগী সরকারের এই রিপোর্টে রাজ্যে ৪০ হাজার অমুসলিম অবৈধ শরণার্থী থাকার দাবি করা হয়েছে। এই শরণার্থীরা বিশেষ করে রাজ্যে ১৯ টি জেলায় বসবাস করছে। ওই জেলা গুলো হল, আগরা, রায়বেরালি, সাহারনপুর, গোরখপুর, আলীগড়, রামপুর, মুজফরনগর, হাপুড়, মথুরা, কানপুর, প্রতাপগড়, বারাণসী, আমেঠি, ঝাঁসি, বহরাইচ, লক্ষ্মীপুর, মেরথ আর পিলিভিত।