নতুন খবরভারতবর্ষ

আশীষ পরিচয় দিয়ে যুবতীর সাথে লিভ-ইনে ছিল আসিফ! গ্রেফতার করল পুলিশ

বর্তমান ভারতবর্ষে লাভ জিহাদের পাশাপাশি গ্রুমিং জিহাদ অন্যতম এক বড় সমস্যা। আইন প্রণয়ন করেও এই সমস্যার সমাধান করা কঠিন হয়ে পড়ছে। উত্তর প্রদেশের সম্বল জেলা থেকে গ্রুমিং জিহাদের একটি তাজা ঘটনা সামনে এসেছে।

প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, সম্বলের চান্দৌসী অঞ্চলের বাসিন্দা আসিফ কুরেশি নামের এক ব্যক্তি এক নাবালিক হিন্দু মেয়েকে প্রেমের ফাঁদে ফেলার জন্য আত্মপরিচয় গোপন করে হিন্দু সাজার ভান করে। সে মেয়েটির কাছে নিজেকে আশীষ নামে পরিচয় দেয়। উত্তরপ্রদেশ পুলিশ ইতিমধ্যে কুরেশিকে জয়পুর থেকে গ্রেপ্তার করেছে এবং ওই হিন্দু মেয়েটিকেও উদ্ধার করেছে।সম্বলের এসপি জানিয়েছেন, অভিযুক্ত ও মেয়েটির মধ্যে লিভ-ইন সম্পর্ক ছিল।

৭ ই জুলাই চাঁন্দৌসি থানায় মেয়েটির পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ দায়ের করা হয়। বলা হয়, আসিফ কুরেশি নামের এক ব্যক্তি তাদের মেয়েকে সম্পর্কে জড়ানোর জন্য প্ররোচিত করে। পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে যে মেয়েটির পরিবার বারবার পুলিশে যোগাযোগ করার পরেও পুলিশ উপযুক্ত ব্যবস্থা নেয়নি। এরপর পুলিশের পক্ষ থেকে কোনও পদক্ষেপ না নেওয়ায় পরিবারটিকে সাহায্য করার জন্য হিন্দু জাগরণ মঞ্চ এগিয়ে আসে।

সম্বলের হিন্দু জাগরণ মঞ্চের প্রধান কৈলাস চন্দ্র গুপ্ত বলেছেন, তারা জানতে পারে পুলিশ দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি, তাই তারা পুলিশের কাছে এসে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন। থানাকে জানানো হয়, যে এফআইআর রেজিস্ট্রেশন করতে আরও বিলম্ব হলে হিন্দু সম্প্রদায় বৃহত্তর আন্দোলনের পথে নামবে। আসিফ কুরেশির বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

কুরেশিকে জয়পুরে গ্রেফতার করা হলে, সেখান থেকে উত্তর প্রদেশ পুলিশ তাকে নিয়ে আসে। বর্তমানে মেয়েটিকে উদ্ধার করা হয়েছে এবং সে পুলিশি সুরক্ষার আওতায় রয়েছে। চাঁন্দৌসি থানার এসএইচও ডি কে শর্মার বলেছেন, আসিফকে কয়েক দিন আগে গ্রেপ্তার করা হয়। আসিফ বর্তমানে কারাগারে রয়েছেন এবং মামলার তদন্ত চলছে। তিনি আরও জানান, “২২ শে জুলাই বৃহস্পতিবার মেয়েটি ম্যাজিস্ট্রেটের সামনে তার বক্তব্য দেবে। মেয়েটির জবানবন্দি রেকর্ড করার পরে পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।”

Related Articles

Back to top button