অপরাধনতুন খবর

১৬ বর্ষীয় নাবালিকাকে ধর্ষনের চেষ্টা করল মাদ্রাসা শিক্ষক! তদন্তে নেমে গ্রেফতার করল পুলিশ

উত্তরপ্রদেশ পুলিশ আমেঠি জেলায় এক মাদ্রাসা শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে। কালিম আহমেদ নামের যে ব্যাক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে তার বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ উঠেছে। নাবালিকা ছাত্রীর সাথে অভদ্র আচরণ ও ধর্ষণ করার চেষ্টার অভিযোগ কালিম আহমেদের উপর রয়েছে।

১৫ বর্ষীয় ছাত্রীকে নেশা জাতীয় ওষুধ দিয়ে অন্য দুই ব্যাক্তির সাথে মিলে ধর্ষণ করার চেষ্টা করা হয়েছিল বলে অভিযোগ উঠেছে। শুধু এই নয়, মামলাকে আড়াল করার জন্য মাদ্রাসা শিক্ষক নাবালিকা ও তার মাকে পর্যন্ত প্রাণে মারার হুমকি দিয়েছিল।

নাবালিকার মা ১৬ ডিসেম্বর আমেঠিতে পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করিয়েছিলেন। নাবালিকার মা বলেছেন, ২৬ শে নভেম্বর বাড়িতে যখন মেয়ে একা ছিল তখন মৌলানা তার বাড়িতে ঢুকে পড়ে এবং নেশা জাতীয় মাদক দিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে।

তবে কুকর্ম করার আগেই নাবালিকার মা বাড়িতে ফেরেন। যারপর মা শিক্ষক ও বাকি দুজনের হাত থেকে নিজের মেয়েকে বাঁচিয়ে নেন। জানা গেছে, নাবালিকা যে মাদ্রাসাতে পড়াশোনা করতো অভিযুক্ত শিক্ষক সেই মাদ্রসার মৌলানা। আপাতত পুলিশ মুখ্য অভিযুক্ত কালিম আহমেদকে গ্রেফতার করেছে। অন্য দুজনকে গ্রেফতারের জন্য পুলিশ চেষ্টা চালাচ্ছে।

Related Articles

Back to top button