নতুন খবরভারতীয় সংস্কৃতি

এবার উত্তরাখণ্ডের ৪ টি মহাবিদ্যালয়ে শোনা যাবে বেদের উচ্চারণ! স্থাপন করা হবে বেদকেন্দ্র।

পাঠ তো দূরে থাক, এখন ভাষা শুধুমাত্র পুজো, বিয়ে ইত্যাদি অনুষ্ঠানিক কার্যেই ব্যাবহৃত হয়। বৈজ্ঞানিক গবেষণায় বলা হয়েছে, বিশ্বের সবথেকে উন্নত ভাষা হলো ভারতের ভাষা। এর নিত্য পাঠ ও সঠিক উচ্চারণ করলে মানুষের বুদ্ধি ৩ গুন বৃদ্ধি পায়। ইউরোপের দেশগুলি এখন তাদের স্কুল কলেজে ভাষা শেখাতে শুরু করেছে। অন্যদিকে জার্মানিতে ভাষার প্ৰচুর কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় খুলে দেওয়া হয়েছে। সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে ভারতে ভাষাকে নিয়ে হাসি মজা করা হয়। 3 ইডিয়টস এর মতো বলিউড মুভিতে ভাষাকে কমিডি করার জন্য ব্যাবহৃত হয়। তবে ভারতের জনগণ আরো একবার তাদের আসল শিক্ষা ব্যাবস্থা তথা , উপনিষদ এর উপর আগ্রহ প্রকাশ করছে। যার দরুন সরকারও জনগণের আগ্রহকে মান্যতা দিয়ে কাজ শুরু করছে।

(বেদ পাঠ)

রুদ্রপ্রয়াগ, জোশীমঠ, উত্তরকাশি এবং ঋষিকেশ এর মহাবিদ্যালয়গুলিতে এবার বেদমন্ত্র গুঞ্জন হতে শোনা যাবে। উত্তরাখণ্ড () সংস্কৃত () বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যোগে সরকারের সংস্কৃত শিক্ষা বিভাগ কেদানাথ, বদ্রীনাথ, ইয়ামনোত্রির নিকটে এবং ঋষিকেশ সংস্কৃত মহাবিদ্যালয়ে বেদ কেন্দ্র স্থাপনের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এই বেদ কেন্দ্রগুলিতে বেদগুলির শ্লোকগুলি গভীরভাবে অধ্যয়ন করানো হবে। সরকার এর জন্য জোর দিয়ে কাজ শুরু করছে। বেদ কেন্দ্র প্রতিষ্ঠার জন্য চেয়ারম্যানসহ সাত সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই কমিটি কেদারনাথ সনাতন ধর্ম ডিগ্রি সংস্কৃত কলেজ উখিমাথ রুদ্রপ্রয়াগ, শ্রী বদ্রীনাথ বেদ-বেদং স্নাতকোত্তর সংস্কৃত কলেজ জোশীমঠ, শ্রী বিশ্বনাথ স্নাতকোত্তর সংস্কৃত কলেজ এ বেদকেন্দ্র গড়ে তোলার ব্লুপ্রিন্ট তৈরি করেছে।

এই কমিটি চারটি সংস্কৃত কলেজে বেদ প্রতিষ্ঠার জন্য কর্মপরিকল্পনা তৈরি শুরু করেছে। রাজ্য সংস্কৃত শিক্ষামন্ত্রী অরবিন্দ পান্ডেও চারটি কলেজে বেদ কেন্দ্র স্থাপনে আগ্রহ দেখিয়েছিলেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে উত্তরাখণ্ড সংস্কৃত বিশ্ববিদ্যালয়ের কুলপতি প্রফেসর ডঃ দেবী প্রসাদ ত্রিপাঠি এগিয়ে এসে এই বিষয়ে সরকারকে একটি চিঠি জারি করেছিলেন। বেদ কেন্দ্র স্থাপনে গুরুত্বের পরিচয় দিয়ে, সরকারের সংস্কৃত শিক্ষা বিভাগ শীঘ্রই সাত কর্মকর্তার একটি কমিটি গঠন করেছে।

রাজ্যের চারটি সংস্কৃত কলেজে বেদ প্রতিষ্ঠার বিষয়ে সংস্কৃত শিক্ষার দায়িত্বে নিযুক্ত সচিব বিনোদ প্রসাদ রাতুরির কাছ থেকে একটি চিঠি পেয়েছে। এই ক্রমে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক বেদ কেন্দ্র প্ৰতিষ্ঠার বিষয়ে ডঃ দেবী প্রসাদ ত্রিপাঠীর নেতৃত্বে পরামর্শ ও কর্মপরিকল্পনা তৈরি করে সরকারের কাছে প্রেরণ করা হবে।

Back to top button
Close