নতুন খবরভারতবর্ষ

মোদী সরকার আর পুলিশ আমার জুতো চুরি করে নিয়েছে! কৃষক আন্দোলন থেকে মহিলা নেত্রীর ভিডিও ভাইরাল

নয়া দিল্লীঃ দিল্লী আর তাঁর পার্শবর্তী এলাকায় চলা কৃষক আন্দোলনের (Farmers Protest) সময় এক আজব ঘটনার ভিডিও (Video) সামনে এসেছে। এক মহিলা কৃষক নেত্রীর জুতো চুরি হয়ে যায়, আর এই জুতো চুরির ঘটনার জন্য তিনি সরাসরি মোদী সরকারকে দায়ি করেন। এই ঘটনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল (Viral Video) হয়ে যায়। গ্রেটার নয়ডায় চলা বিরোধ প্রদর্শনের সময় ওই মহিলা নেত্রীর জুতো চুরি হয়ে যায়, আর জুতো চুরির পর ওই নেত্রী সেই চুরির দায় মোদী সরকার আর পুলিশের ঘাড়ে চাপান।

মহিলা নেত্রী নিজের পরিচয় ‘কিষাণ একতা সংঘ” নামের এক সংগঠনের মহিলা মোর্চার সর্বভারতীয় সভাপতি ঠাকুর গীতা ভাটি বলে জানান। উনি জানান। পুলিশ, প্রশাসন আর সরকার ষড়যন্ত্র করে ওনার পায়ের জুতো ছিনিয়ে নিয়েছে। তিনি জানান, যাতে তিনি আন্দোলন না করতে পারেন, সেই কারণেই পুলিশ আর সরকার এই ঘৃণ্য ষড়যন্ত্র করেছেন। মহিলা কৃষক নেত্রী বলেন, জুতো নেই তো কি, তিনি খালি পায়েই কৃষক আন্দোলনে লরবেন আর জুতো চুরি যাওয়ার কারণে FIR দায়ের করবেন।

মহিলা আন্দোলনকারী নেত্রী বলেন, ‘আমি এদের বিরুদ্ধে লড়াই লড়ব। কৃষকদের কাছে আজ খাওয়ার জন্য কিছুই নেই। আমি অনেক কষ্টে টাকা জড়ো করে জুতো কিনেছিলাম। আর সেই কষ্টের টাকা দিয়ে কেনা জুতো আমার থেকে ছিনিয়ে নেওয়া হয়। এখন এই জুতো আমাকে কে দেবে? সরকার আমাকে আমার জুতো দিয়ে দিক।” ওনার পাশে থাকা সমর্থকরা সেই সময় ওনার নাম নিয়ে জিন্দাবাদের স্লোগান দেন।

অনেকেই ওনার বয়ান নিয়ে হাসি ঠাট্টাও করেন। দিল্লীর বিজেপি নেতা তেজিন্দর সিং বজ্ঞা এই বিষয়ে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন টুডোর কাছে হস্তক্ষেপের দাবি করেন। আরেকদিকে বিজেপির সমর্থক বলে পরিচিত দ্য স্কিন ডাক্তার নামের এক ট্যুইটার ইউজার লেখেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এই ঘটনাকে জাতীয় বিপর্যয় ঘোষণা করে সংসদ অধিবেশন ডেকে জুতোর ব্যবস্থা করার দাবি তুলেছেন। আরেকজন আবার এই ঘটনার জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আর মোদী সরকারের মন্ত্রীদের ইস্তফার দাবি করেছেন।

Related Articles

Back to top button