নতুন খবরবিনোদনভারতবর্ষভিডিও

ভারতের প্রথম জাতীয় সঙ্গীত শেয়ার করলেন কঙ্গনা রানাওয়াত, ভাইরাল ভিডিও দেখে চটল নেটিজেনরা

মুম্বইঃ বলিউড ইন্ডাস্ট্রির ‘পাঙ্গা গার্ল’ অর্থাৎ অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত চলচ্চিত্রের চেয়ে তার বক্তব্যের কারণেই বেশি আলোচনায় থাকেন। তিনি প্রায়শই এরকম কিছু বলেন বা সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেন, যার কারণে তিনি ট্রোলারের নিশানায় আসেন। আবারও একই ঘটনা ঘটল কঙ্গনা রানাওয়াতের সঙ্গে। প্রজাতন্ত্র দিবসের ঠিক একদিন আগে, কঙ্গনা রানাওয়াত সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি অদেখা ভিডিও শেয়ার করেছেন, যা স্বাধীনতার সাথে সম্পর্কিত। এই ভিডিওটিকে দেশের প্রথম জাতীয় সঙ্গীত বলে বর্ণনা করেছেন কঙ্গনা।

একটি কালো এবং সাদা ভিডিও কঙ্গনা রানাওয়াত তার অফিসিয়াল ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেছেন। এই ভিডিওটি মোট 3 মিনিট 16 সেকেন্ডের, যা একটি লাল পতাকা দিয়ে শুরু হয়। এর পর অনেক ভিজ্যুয়ালসহ ভিডিওতে গানটি শোনা যাচ্ছে। এই ভিডিওটির সাথে কঙ্গনা রানাওয়াতের লেখা ক্যাপশন দেখে সবাই হতবাক।

এই ভিডিওটির সাথে কঙ্গনা রানাওয়াত ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘আমাদের প্রথম জাতীয় সঙ্গীত। আমাদের সকল দেশবাসীকে প্রজাতন্ত্র দিবসের অগ্রিম শুভেচ্ছা।” কঙ্গনা রানাওয়াতের এই পোস্টে ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারকারীরা ক্রমাগত তাদের প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছেন। অনেকে কঙ্গনার প্রশংসা করলেও কেউ কেউ কঙ্গনাকে অনেক কথাও শুনিয়েছেন।

কঙ্গনা রানাওয়াতের সেই পোস্টে একজন ব্যবহারকারী লিখেছেন, ‘আমার প্রিয় দিদি এটা ভুল তথ্য । আমাদের প্রথম জাতীয় সঙ্গীত রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর লিখেছেন।” তবে এই মন্তব্যে অন্য একজন ব্যবহারকারী তার প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন এবং উইকিপিডিয়ার লিঙ্ক শেয়ার করেছেন এবং বলেছেন আগে কিছু তথ্য সংগ্রহ করুন। আমার কাছে আপনার চেয়ে বেশি তথ্য আছে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Kangana Ranaut (@kanganaranaut)

এছাড়াও একজন ব্যবহারকারী লিখেছেন, ‘কী ফালতু। মণিকর্ণিকা মুক্তির 3 বছর হয়ে গিয়েছে এবং কোনও ভাল রিল ভাগ করার পরিবর্তে আপনি এই সমস্ত ভাগ করছেন।” সেই সঙ্গে আরেক ব্যবহারকারী লিখেছেন, ‘কী হল এইটা?’ এর সঙ্গে সেই ব্যবহারকারী রাগান্বিত ইমোজিও দিয়েছেন। যাইহোক, এই সবের মধ্যে একজন ব্যবহারকারী লিখেছেন, ‘জয় হিন্দ, আমি কয়েকদিন আগে ‘বোস’ ওয়েব সিরিজে এই গানটি শুনেছি।’

Related Articles

Back to top button