Press "Enter" to skip to content

ভাইরাল ভিডিওঃ মাঝখান দিয়ে হাঁটছেন প্রধানমন্ত্রী মোদী আর সেনা জওয়ানরা দিচ্ছেন ভারত মাতা কি জয় স্লোগান

শেয়ার করুন -

নয়া দিল্লীঃ ভারত আর চীনের মধ্যে পূর্ব লাদাখের (Ladakh) গালওয়ান উপত্যকায় বিগত দুই মাস ধরে উত্তেজনার পারদ চড়ছে। আর আজ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi) আচমকা লাদাখে পৌঁছে সবাইকে চমকে দেন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর লাদাখ সফর চীনকে কড়া বার্তা দেওয়ার জন্য যথেষ্ট ছিল। আর এই কারণে চীনের বিদেশ মন্ত্রালয়ের তরফ থেকে এবার এই বিষয়ে প্রথম প্রতিক্রিয়া সামনে এসেছে। চীনে বিদেশ মন্ত্রালয়ের তরফ থেকে বয়ান জারি করে বলা হয়েছে যে, কোন দেশই যেন এমন কিছু না করে, যাতে পরিস্থিতি আর খারাপ হয়।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র আজ মোদী লাদাখে পৌঁছানর পর জওয়ানদের মধ্যে উৎসাহ আরও বেড়ে যায়। আর প্রধানমন্ত্রীকে দেখে জওয়ানরা ‘ভারত মাতা কি জয়” আর বন্দে মাতরমের স্লোগাণে মুখরিত হন। সংবাদ সংস্থা ANI এরকমই এক ভিডিও পোস্ট করেছে, যেখানে ভারতীয় জওয়ানদের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সামনে দেশ ভক্তির স্লোগান দিতে দেখা যাচ্ছে। এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী হাত জোর করে জওয়ানদের ধন্যবাদ জানাচ্ছেন।

আজকে প্রধানমন্ত্রীর লাদাখ সফর নিয়ে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয় (PMO) থেকে জারি বয়ানে বলা হয়েছে যে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আপাতত নিমুর একটি ফরোয়ার্ড পোস্টে আছেন। উনি সকাল সকালই সেখানে পৌঁছান। এই জায়গা সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ১১ হাজার কিমি উঁচুতে অবস্থিত। এই এলাকা সিন্ধু নদীর তীরে অবস্থিত আর জাঙ্কসর রেঞ্জ দিয়ে ঘেরা আর খুবই দুর্গম স্থান। নিমু বিশ্বের সবথেকে উঁচু আর খতরনাক পোস্ট গুলোর মধ্যে একটি। আর সেখানে আচমকাই প্রধানমন্ত্রীর সফর সবাইকে চমকে দিয়েছে।

পূর্ব লাদাখে চীনের সাথে চলা উত্তেজনার মধ্যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর এই সফর খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে মানা হচ্ছে। উনি গত মাসে মন কি বাতে বলেছিলেন যে, লাদাখে যা হয়েছে সেটা নিয়ে চীনকে যোগ্য জবাব দেওয়া হয়েছে। আর এর দুদিন পরেই ভারত চীনকে আরও বড় ঝটকা দিয়ে ৫৯ টি চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করেছে। ভারতের এই পদক্ষেপে চীনের কয়েক লক্ষ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে।