নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গ

নিরাপত্তা বলয়ে মুড়ে ফেলা হল গোটা নন্দীগ্রাম, বন্ধ হল সমস্ত সীমানা! জারি ১৪৪ ধারা

কলকাতাঃ আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা বাকি। তারপরেই একুশের নির্বাচনের দ্বিতীয় দফার ভোটগ্রহণ শুরু হতে চলেছে। আগামীকাল সবথেকে হাইভোল্টেজ বিধানসভা কেন্দ্র নন্দীগ্রামেও নেওয়া হবে ভোট। আর ভোটের ঠিক কয়েক ঘণ্টা আগেই নিরাপত্তা বলয়ে মুড়ে ফেলা হচ্ছে নন্দীগ্রামকে। সিল করে দেওয়া হল নন্দীগ্রামের সমস্ত সীমান্ত। জল-স্থল-আকাশপথে চলবে কড়া নজরদারি।

রাজ্যে নির্বাচনী প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার আগে থেকেই বহিরাগত ইস্যু তুলে বাজিমাত করতে চেয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো তথা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর নন্দীগ্রামে প্রার্থী হওয়ার পর তিনি বারবার অভিযোগ করে এসেছেন যে, বিজেপি নন্দীগ্রামে বহিরাগত গুণ্ডাদের ঢুকিয়ে ভোটারদের ভয় দেখাচ্ছে। ভোট প্রভাবিত করার চেষ্টা করছে। এবার মুখ্যমন্ত্রীর সেই অভিযোগকে মান্যতা দিয়ে নন্দীগ্রামকে পুরো নিরাপত্তা বলয়ে মুড়ে ফেলা হচ্ছে।

এছাড়াও নির্বাচনের আগে বিজেপির প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারী এবং সংযুক্ত মোর্চার বাম প্রার্থী মীনাক্ষী মুখার্জীর নিরাপত্তাও বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে কমিশনের তরফ থেকে। শুভেন্দুর জন্য মহিলা বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। আর মীনাক্ষীর জন্য ৪ জন্য সশস্ত্র নিরাপত্তাকর্মীকে নিয়োগ করা হয়েছে।

নন্দীগ্রামের সর্বত্র জারি করা হয়েছে ১৪৪ ধারা। তবে EVM যেখানে মজুত আছে আর ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের ২০০ মিটার এলাকা মুক্ত রাখা হয়েছে। নন্দীগ্রামে ২২ কোম্পানির কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। বলে রাখি, নন্দীগ্রামে মোট ভোটারের সংখ্যা হল ২ লক্ষ ৫৭ হাজার ৯৯ জন। এদের মধ্যে মহিলা ভোটার ১ লক্ষ ২৩ হাজার ৮৯৮ জন আর পুরুষ ভোটার ১ লক্ষ ৩৩ হাজার ২৫৭ জন।

পূর্ব মেদিনীপুরে নিরাপত্তা বন্দোবস্ত মজবুত করানোর জন্য কমিশনের তরফ থেকে IPS প্রবীণ ত্রিপাঠিকে হলদিয়ায় পাঠানো হয়েছে। এছাড়াও নন্দীগ্রামে থাকবেন নির্বাচন কমিশনের নিয়োগ করা আধিকারিক খগেন্দ্রনাথ ত্রিপাঠী।

Related Articles

Back to top button