নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

হাড়োয়ায় আড্ডারত তৃণমূল কর্মীদের পেটালো কেন্দ্রীয় বাহিনী

হাড়োয়াঃ পঞ্চম দফার নির্বাচন একেবারে শেষ লগ্নে। রাজ্যের ৬ জেলার ৪৫টি আসনে আজ ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়া চলল। সকাল থেকেই যায়গায় যায়গায় বিক্ষিপ্ত অশান্তি দেখা গিয়েছে। কোথাও ভোটারদের বুথে যেতে বাধা, আবার কোথাও বিরোধী দলের এজেন্টকে মারধর করা এবং অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার ঘটনা সামনে এসেছে। আবার বরানগরে বিজেপির প্রার্থী পার্নো মিত্রকে ঘিরে তৃণমূল কর্মীদের বিক্ষোভের খবরও সামনে এসেছে।

এছাড়াও কামারহাটিতে তৃণমূল প্রার্থী মদন মিত্রকে সকাল সকাল বুথে ঢুকতে বাধা দেওয়ায় কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন তিনি। আবার সন্ধ্যায় অসুস্থ হয়ে পড়েন মদন মিত্র। শ্বাসকষ্টের কারণে তাঁকে অক্সিজেন সাপোর্টও দেওয়া হয়েছে। কামারহাটি কেন্দ্রের একটি দলীয় কার্যালয়ে নিয়ে গিয়ে তাঁর প্রাথমিক চিকিৎসা করানো হয়। চিকিৎসককে ডাকার পাশাপাশি, সেখানে প্রস্তুত রাখা হয়েছে অ্যাম্বুলেন্সও। প্রয়োজনে নিয়ে যাওয়া হতে পারে হাসপাতালে। জানা যাচ্ছে, বয়সজনিত কারণ এবং প্রচণ্ড গরমেই তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। যদিও দলীয় কর্মীরা জানাচ্ছেন আপাতত মদন মিত্রের অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে।

আরেকদিকে, হাড়োয়ার দোগাছিয়ার মণ্ডলপাড়ার ভোটের একবারে শেষ মুহূর্তে অশান্তির সৃষ্টি হয়। সেখানে তৃণমূল কর্মীদের উপর লাঠিচার্জের অভিযোগ ওঠে কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে। জানা যায় যে, তৃণমূলের কয়েকজন কর্মী বুথ থেকে কিছুটা দূরে গ্রামের মধ্যে চেয়ার পেতে বসে আড্ডা মারছিলেন। আর সেই সময় কেন্দ্রীয় বাহিনী কিছু না বলেই তাঁদের উপর লাঠিচার্জ করে।

বাহিনীর লাঠিচার্জে বেশ কয়েকজন তৃণমূল কর্মী আহতও হন বলে জানা যায়। তৃণমূল অভিযোগ করে বলে যে, কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা চেয়ার গুলোকে পর্যন্ত পুকুরে ফেলে দেয়। যদিও বাহিনী সুত্রের খবর, অবাঞ্ছিত জমায়েত রুখতেই এই কাজ করেছে তাঁরা।

Related Articles

Back to top button