নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গ

চাকরি নেই! আত্মনির্ভরতার পথ বাছলেন বাংলার মেয়ে, রসায়নে স্নাতক ডিগ্রি নিয়ে করছেন বাসের কন্ডাক্টরি

কলকাতাঃ কথায় বলে, ‘যে রাঁধে সে চুলও বাঁধে’- এই প্রবাদ বাক্যকে সত্যি প্রমাণিত করে ছকভাঙা পথে এগিয়ে চলেছেন চন্দ্রকোণার (chandrakona) সাগরিকা পল্লবী (sagarika pallabi)। রসায়নে স্নাতক হয়েও যখন কোন চাকরি পেলেন না, অগত্যা তখন বেছে নিলেন এই পথ, কাঁধে তুলে নিলেন কন্ডাক্টরির ব্যাগ।

চন্দ্রকোণা থেকে কলকাতা স্টেশন পর্যন্ত দূরপাল্লার বাসেই কন্ডাক্টরি করেন সাগরিকা। প্রতিদিন ভোর ৩ টের সময় ঘুম থেকে উঠে, তৈরি হয়ে কন্ডাক্টরির ব্যাগ নিয়ে ভোর ৫ টার মধ্যে পৌঁছে যান চন্দ্রকোনা টাউন কেন্দ্রীয় বাস স্ট্যান্ডে। সেখান থেকেই ভোর সওয়া ৫ টা নাগাদ কলকাতার উদ্দেশ্যে রওনা দেয় তাঁর বাস।

রসায়নে স্নাতক হয়েও চাকরি না পাওয়ায় নিজে স্বাবলম্বী হওয়ার লক্ষ্যেই কয়েক মাস আগে একটি বাস কেনেন সাগরিকা। তারপর সেই বাসে নিজেই কন্ডাক্টরি করেন। এই কাজে পাশে রয়েছেন সাগরিকার স্বামীও। স্ত্রীকে সমান ভাবেই সমর্থন করেছেন তিনি। পাশাপাশি তৃণমূলের স্থানীয় শ্রমিক সংগঠন সাগরিকার এই কাজকে স্বাগত জানিয়েছে।

সাগরিকার এই কাজের প্রশংসা করে ঘাটাল তৃণমূল পরিবহণের নেতা মেহের আলি খান বলেছেন, ‘এই প্রথম আমাদের জেলায় একজন মহিলা হয়েও কন্ডাক্টরের কাজ করছেন। তাঁকে দেখে ভবিষ্যতে যদি আরও অনেক মহিলা এই কাজে এগিয়ে আসেন, তাহলে তাঁদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হবে’।

নিজের এই কাজের বিষয়ে সাগরিক জানান, ‘পরিবারের অনেকেই শুরুতে এই কাজ মেনে নিতে পারেননি। তবে পরবর্তীতে তাঁরা বুঝতে পারে সৎ পথে উপার্জন করেল, কোন কাজই ছোট নয়’।

Related Articles

Back to top button