আন্তর্জাতিকনতুন খবর

নিজেদের শক্তিশালী দেখাতে হলিউড সিনেমার ভিডিও চুরি করল চীন! সত্যতা সামনে আসতেই বেইজ্জত ড্রাগন

নয়া দিল্লীঃ চীনের (China) ক্ষমতায় থাকে কমিউনিস্ট পার্টির (CCP) এর পিপলস লিবারেশন আর্মির (PLA) একটি পুরনো ভিডিও (Video) সোশ্যাল মিডিয়ায় দ্রুত গতিতে ভাইরাল হচ্ছে। যেখানে হলিউড সিনেমার একটি দৃশ্যকে চীনের সেনা দ্বারা করা একটি অপারেশন হিসেবে দেখানো হচ্ছে। চীন আর চীনের সেনা PLA সম্প্রতি লাদাখে ভারতের বিরুদ্ধে মোর্চা খুলেছে। আর এর কারণে গোটা বিশ্বের সামনে চীনকে অপদস্ত হতেও হচ্ছে। চীন নিজেদের শক্তিশালী দেখানোর জন্য ২০১১ এর PLA বায়ুসেনা দ্বারা করা একটি প্রশিক্ষণের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল করছে। যদিও সেই ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর তাদের নিয়ে অনেক হাসাহাসি হচ্ছে। কারণ সেই ভিডিও আসলে ১৯৮৬ সালের হলিউড সিনেমা ‘টপ গান” এর একটি দৃশ্য।

চীন সরকারের মুখপাত্র চাইনা সেন্ট্রাল টেলিভিশন ২৩ জানুয়ারি ২১১ সালে PLA বায়ুসেনা দ্বারা করা একটি প্রশিক্ষণের ভিডিও দেখায়। সেখানে দাবি করা হয় যে, চীনের বায়ুসেনা শত্রু পক্ষের বিমানকে কীভাবে ধ্বংস করছে। চাইনা সেন্ট্রাল টেলিভিশন (CCTV) দ্বারা ওই ভিডিও টিভিতে প্রসারিত করা হয়। যেখানে চীনের ফাইটার প্লেন শত্রুদের একটি বিমানকে কীভাবে ধ্বংস করছে দেখানো হয়েছে।

 

ওই ভিডিওটি ভারতকে ভয় দেখাতে চীন আবার অনলাইনে পোস্ট করা শুরু করে। অনলাইনে পোস্ট করা মাত্রই ওই ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায়। চীন দাবি করে যে, তাদের J-10 ফাইটার জেট দিয়ে মিসাইল দ্বারা শত্রুদের বিমান ধ্বংস করা হচ্ছে।

যদিও সোশ্যাল মিডিয়া ইউজাররা চীনের এই চালাকি ধরে ফেলে। আর তাঁরা বলে যে, এই ফুটেজ কোন সৈন্য প্রশিক্ষণের দৃশ্য না, এটি হলিউড সিনেমা ‘টপ গান” এর একটি দৃশ্য। এর সাথে সাথে চীনের বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়ায় ইউজাররা চুরির অভিযোগও তোলে। সোশ্যাল মিডিয়ার ইউজাররা জানান, চীন যেই ভিডিও দেখিয়ে দাবি করছে যে এটা তাদের প্রশিক্ষণের ভিডিও আর J-10 ফাইটার জেট, সেটা আসলে আমেরিকার F-5 বিমান ছিল আর দৃশ্যটি টপ গান সিনেমা থেকে নেওয়া হয়েছে।

এই ঘটনার পর CCTV দুটি দৃশ্যই একসাথে তুলনা করে এবং জানা যায় যে, দুটি দৃশ্যই একই আর সেটি হলিউড মুভি টপগানের।

Related Articles

Back to top button