নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

ভোট দিতে যেতে দিচ্ছিল না তৃণমূল কর্মী! মহিলা বললেন ‘আমি তো যাবই, তোর পার্টি যা পারে করুক”

বিষ্ণুপুরঃ তৃতীয় দফার নির্বাচনের দিনে তিন জেলার চারিদিক থেকেই ভোটারদের বুথে ভোট দিতে যেতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ উঠছে। আর প্রায় সব ক্ষেত্রেই অভিযুক্ত শাসক দল তৃণমূল। এরকমই এক ঘটনা সামনে এসেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার বিষ্ণুপুর থেকে। সেখানে এক তৃণমূল কর্মীর বিরুদ্ধে মহিলা ভোটারকে ভোট দিতে যাওয়ার আগে বাধা দিতে দেখা গিয়েছে। বিজেপির তরফ থেকে ওই ঘটনার ভিডিও টুইটারে পোস্ট করা হয়েছে।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে, একজন ব্যক্তি এক মহিলার রাস্তা আটকে তাঁকে বুথে ভোট দিতে যেতে বাধা দিচ্ছে। ওই ব্যক্তি মহিলাকে বলছেন যে, ‘ভোট দিতে যাবি না।” মহিলাও দমবার নয়, তিনিও ওই ব্যক্তির চোখে চোখ রেখে বললেন, ‘আমি ভোট দিতে যাবই। তোর দলের কিছু করার থাকলে করে নিক।” ঘটনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হচ্ছে। ইতিমধ্যে এই ভিডিও কমিশনের কাছেও পাঠানো হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে।

অভিযুক্ত যুবক তৃণমূল কর্মী বলে চিহ্নিত হয়েছে। তাঁর বিরুদ্ধে মহিলা ভোটারকে শারীরিক হেনস্থা করার অভিযোগ উঠছে। বিষ্ণুপুর বিধানসভা কেন্দ্রের ১২৩ নম্বর বুথের বাসিন্দারাও তৃণমূলের বিরুদ্ধে ঠিক একই রকম অভিযোগ করেছেন। তাঁরা জানিয়েছেন যে, গ্রামের মহিলারা সকাল সকাল ভোট দিতে যাওয়ার সময় তৃণমূলের কর্মীরা তাঁদের লাঠি, বাঁশ নিয়ে তাড়া করে।

বিজেপির তরফ থেকে এই ঘটনার ভিডিও টুইটারে পোস্ট করে লেখা হয়, ‘এটাই নারী শক্তি, যারা কোনো চোখ রাঙানিকে ভয় করেনা! তৃণমূল যতই অত্যাচার করো, বাংলার নারীরা এই অত্যাচারের বিরুদ্ধে নিজেদের মতাধিকার প্রয়োগ করবে।” বিরোধীরা এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন এবং অভিযুক্ত ব্যক্তির শাস্তির দাবিতে সরব হয়েছেন।

Related Articles

Back to top button