নতুন খবরভারতবর্ষরাজনীতি

“যে ঘৃণা ছড়ায় সে যোগী হতে পারে না”- রাহুল গান্ধীর এই মন্তব্যের পাল্টা কড়া জবাব দিলেন যোগী আদিত্যনাথ

রাজনৈতিক পার্টি গুলির মধ্যে ঝগড়া, দ্বন্দ্ব নতুন কোনো ব্যাপার নয়। প্রায়শই কোনো না কোনো ইস্যুতে যে কোন দল বিরোধী রাজনৈতিক দল একে অপরের বিরুদ্ধে মাঠে নেমে পড়ে। আগে বাকদণ্ডিতা শুধুমাত্র রাজনৈতিক সভার মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকত তবে এখন সোশ্যাল মিডিয়ার যুগে বিভিন্ন প্লাটফর্মে তারা একে অপরের বিরুদ্ধে খোলাখুলি বলে থাকেন। যে কারণে সাধারণ মানুষও তাতে অংশ নিতে পারে।

সম্প্রতি এমনই বাকদণ্ডিতা টুইটারে রাহুল গান্ধী ও যোগী আদিত্যনাথের মধ্যে হতে দেখা গেছে। যেখানে বেশিরভাগ মানুষজন যোগী আদিত্যনাথের সাথ দিয়েছেন। আসলে কিছুদিন আগেই রাহুল গান্ধী টুইটারে একটা পোস্ট করেছিলেন। যেখানে তিনি যোগী আদিত্যনাথ কে টার্গেট করে লিখেছিলেন, “যিনি ঘৃণা ছড়ানো তিনি কখনোই যোগী হতে পারেন না।”

আসলে আর কয়েক মাস পরই উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচন। এদিকে যোগী আদিত্যনাথ উত্তরপ্রদেশের সুরক্ষা ব্যবস্থাকে আরো শক্তিশালী করতে অপরাধীদের বিরুদ্ধে একের পর এক কড়া পদক্ষেপ নিয়েছেন। এই পরিপ্রেক্ষিতে বিরোধীরা অভিযোগ তুলেছে যে, যোগী আদিত্যনাথ সরকার নাকি শুধুমাত্র মুসলিম সম্প্রদায়কে টার্গেট করে একের পর এক অ্যাকশন নিচ্ছে।

বিরোধীদের দাবি যোগী সরকার উত্তরপ্রদেশে রাজ্যজুড়ে ঘৃণা ছড়াচ্ছে আর এতে হিন্দু মুসলিমদের মধ্যে ভেদাভেদ আরও প্রখর হয়ে উঠছে। টুইটার হ্যান্ডেলের রাহুল গান্ধী এমনই পোস্ট করে যোগী আদিত্যনাথ কে আক্রমণ করেন। রাহুল গান্ধী বলেন, “যারা যোগী তারা কখনোই সমাজে ঘৃণা ছড়ায় না কিন্তু যোগী সরকার সমাজে ঘৃণা ছড়াচ্ছে অতএব তিনি যোগী হতে পারেন না”

তুমি রাহুল গান্ধীর এমন মন্তব্যের পর যোগী আদিত্যনাথ চুপ করে বসে থাকেননি তিনি পাল্টা প্রতিক্রিয়া জানিয়ে টুইট করে লিখেছেন, “যাহার মনোভাব যেরকম তিনি প্রভুর মূর্তিকে সেই ভাবেই দেখেন।” শুধু এই নয় যোগী আদিত্যনাথ আরো লেখেন “রাহুল জি যদি অপরাধী উপদ্রবের সাম্রাজ্যের উপর বুলডোজার চালানোর অপরাধ হয় তাহলে এই অপরাধ জারি থাকবে।”
যোগী আদিত্যনাথ এর এমন পাল্টা মন্তব্যকে টুইটারের বহু জন সমর্থন করেছেন। লক্ষণীয় যোগী আদিত্যনাথের এমন মন্তব্যের পর রাহুল গান্ধীর পাল্টা কোনো প্রতিক্রিয়া দেননি।

Related Articles

Back to top button