আন্তর্জাতিকনতুন খবর

ইসলামিক রাষ্ট্র মালদ্বীপে জায়গা হল না জাকির নায়েকের, জঙ্গিদের কোন জায়গা নেই জানিয়ে দিলো তাঁরা!

বিতর্কিত ইসলামিক প্রচারক জাকির নায়েক (Zakir Naik) মালদ্বীপ (Maldives) যাওয়ার চেষ্টা করে, কিন্তু তাঁর এই চেষ্টা ব্যর্থ হয়ে যায়। মালদ্বীপ সরকার জাকির নায়েককে নিজের দেশে ঢোকার অনুমতি দেয়নি।

মালদ্বীপের সংসদের স্পীকার এম নাশিদ (M Nasheed )এই তথ্য দেন। সংবাদসংস্থা এএনআইকে উনি জানান, ২০০৯ সালে আমরা জাকির নায়েককে আমাদের দেশে ঢোকার অনুমতি দিয়েছিলাম, কারণ সেই সময় তাঁকে নিয়ে কোন বিতর্ক ছিলনা। সম্প্রতি সে আবার আমাদের দেশের ভিসা নেওয়ার চেষ্টা করে, কিন্তু সরকার তাঁকে দেশে ঢুকতে দেবেনা বলে জানিয়ে দেয়। আমরা তাঁর সেই সমস্ত ভাষণ পছন্দ করি, যেটা ইসলামের ভালো দিক তুলে ধরে। যদি আপনি হিংসা ছড়ান, তাহলে আপনার এই দেশে কোন জায়গা নেই।

আপনাদের জানিয়ে রাখি, ঢাকার একটি রেস্তোরাঁয় ২০১৬ সালে জঙ্গি হামলা হয়েছিল। সেই হামলায় ইসলামিক উপদেষ্টা জাকির নায়েকের নাম উঠে এসেছিল। এরপর ভারত সরকার জাকির নায়েক ও তাঁর সমস্ত সংস্থার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে দেয়। যদিও গ্রেফতার হওয়ার আগে আর নিষেধাজ্ঞা জারি হওয়ার আগেই জাকির নায়েক দেশ ছেড়ে পালায় আর মালয়েশিয়ায় গিয়ে আশ্রয় নেয়।

বিতর্কিত পিস টিভির সংস্থাপক ৫৩ বছর বয়সী জাকির নায়েকের জন্ম মুম্বাইতে হয়েছিল। ভারত থেকে পালিয়ে যাওয়ার পর ২০১৭ সাল থেকে সে মালয়েশিয়ায় বসবাস শুরু করে। আর সেখানকার প্রাক্তন সরকার তাঁকে সেখানকার নাগরিকতাও দিয়ে দেয়। বর্তমানে মালয়শিয়া সরকার এখনো পর্যন্ত তাঁকে ভারতে ফেরত পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেয়নি, কিন্তু তাঁর ভাষণের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

এই বছরের সেপ্টেম্বর মাসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী মালয়শিয়ার প্রধানমন্ত্রী মহাতির মোহম্মদ এর সাথে বিতর্কিত ইসলামিক ধর্মগুরু জাকির নায়েককে নিয়ে চর্চা করেন, এবং তাঁকে ভারতে পাঠানোর কথা বলেন। যদিও এই ব্যাপারে মালয়েশিয়ার তরফ থেকে সেরকম কোন পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি।

Related Articles

Back to top button