অপরাধনতুন খবর

Zee5 ক্ষুদিরামকে অপরাধী বলার আগে ওনাকে সন্ত্রাসী বুরহান ওয়ানি আর কাসভের সাথে তুলনা করেছিল বামেরা!

সম্প্রতি Zee5 একটি ওয়েব সিরিজ অভয়-2 এ একটি বিতর্কিত দৃশ্য দেখিয়ে সমালোচনার কেন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠেছে। সেখানে একটি দৃশ্যে দেখানো মোস্ট ওয়ান্টেড ক্রিমিনালদের লিস্টে বীর বিপ্লবী ক্ষুদিরাম বসুকে (khudiram bose) দেখানো হয়েছে। এই দৃশ্য নিঃসন্দেহে বিতর্কিত এবং এই দৃশ্য দেখানোর জন্য গোটা Zee5 এর টিমকে ক্ষমা চাইতে হবে। এই ওয়েব সিরিজ থেকে এই দৃশ্য মুছতে হবে। Zee5  এর এই বিতর্কিত দৃশ্যের পর সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁদের বয়কট করার অভিযান শুরু হয়েছে।

কিন্তু জানিয়ে দিই, বিপ্লবীদের অপমান করার ঘটনা এই প্রথম না। এর আগে গোটা ভারতের গর্ব নেতাজী সুভাষ চন্দ্র বসুকেও অপমান করেছিল কিছু স্বার্থান্বেষী রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব। ওনাকে ‘তোজোর কুকুর” পর্যন্ত বলা হয়েছিল। এছাড়াও ক্ষুদিরাম বসুকে বাংলার পাঠ্যক্রমে দুবার সন্ত্রাসবাদী বলে অভিহিত করা হয়েছিল। প্রথমবার ২০০৭ সালে দ্বিতীয়বার ২০১৯ এ। বীর বিপ্লবীরা বারবারই অপমানিত হয়ে আসছেন। আর এবারও হলেন। যারা নিজের রক্ত ঝড়িয়ে এই দেশকে স্বাধীন করেছেন, আজ তাদের অস্তিত্বই সংকটে।

বেশকিছুদিন আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট ভাইরাল হয়েছিল, যেখানে বীর বিপ্লবী ক্ষুদিরাম বসুকে কাশ্মীরের সন্ত্রাসী বুরহান ওয়ানির সাথে তুলনা করা হয়েছিল। সোশ্যাল মিডিয়ায় বামেদের হয়ে গলা ফাটানো জনৈক সঞ্জীব মুখার্জী নামের এক ব্যাক্তি কিছুদিন আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই বিতর্কিত পোস্টটি করেন।

সঞ্জীব বাবু ফেসবুকে পোস্ট করে লেখেন, ‘ঘরে ঘরে জন্মাচ্ছে ক্ষুদিরাম, বুরহান, কাসভ, রাষ্ট্র সাবধান।” আপনাদের জানিয়ে দিই, বুরহান ওয়ানি হিজবুল মুজাহিদ্দিনের টপ কমান্ডার ছিল। বহু সন্ত্রাসী গতিবিধিতে তাঁর নাম জড়িত ছিল। এমনকি অনেক সেনার রক্তে রাঙানো ছিল তাঁর হাত। আর কাসভ হল সেই সন্ত্রাসী যে ২০০৮ এ মুম্বাই হামলা চালিয়েছিল আর শয়ে শয়ে মানুষের প্রাণ কেরেছিল। আর সোশ্যাল মিডিয়ায় বামেদের হয়ে গেল ফাটানো ব্যক্তি এদের সাথে ক্ষুদিরাম বসুর তুলনা করেছিল।

তখন কেউ এদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয় নি। কারণ তখন এর বিরুদ্ধে সোচ্চার হলে বাঙালি বনাম অবাঙালীদের লড়াই তো লাগানো যেত না!

Back to top button
Close